চট্টগ্রাম রবিবার, ২৬ মার্চ, ২০২৩

সর্বশেষ:

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১১:৪১ অপরাহ্ণ

ক্রীড়া ডেস্ক

অনূর্ধ্ব-২০ মহিলা সাফ ফুটবলে প্রতিশোধ চায় নেপাল

কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে সাফের ফাইনালে বাংলাদেশের কাছে হারের ক্ষতটা এখনো শুকায়নি নেপালিদের মন থেকে। এবারের গ্রুপ পর্বেও বাংলাদেশের কাছে ৩-১ ব্যবধানে হেরেছিল তারা। তাই, অনূর্ধ্ব-২০ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়ে সেই হারের ক্ষতে প্রলেপ দিতে চায় নেপাল।

 

বুধবার (৮ ফেব্রয়ারি) ফাইনাল পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে নেপালের কোচ ইয়াম প্রসাদ গুরুং বলেন, ‘আমরা এবার জিততে চাই। আগামীকাল ফাইনাল। আশা করি, এবার বাংলাদেশকে হারিয়ে সাফের ফাইনালে হারের ক্ষতে প্রলেপ দিতে পারব।’

 

কমলাপুর স্টেডিয়ামে আগামীকাল সন্ধ্যা ছয়টায় ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নেপাল। এদিকে, ঘরের মাঠে এবারে ট্রফিটাও রেখে দিতে চান বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক শামসুন্নাহার।

 

গ্রুপ পর্বের মতো ফাইনালেও নেপালকে হারানোর আশা বাংলাদেশ কোচ গোলাম রব্বানীর। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম লক্ষ্য ছিল ফাইনালে ওঠা। মেয়েরা সেটা পূরণ করেছে। আমরা গ্রুপ সেরা হয়ে ফাইনালে উঠেছি। এখন শুধু আরেকটা ম্যাচ বাকি আছে। মেয়েরা গত কয়েক দিন কমলাপুরে যে ফুটবল উপহার দিয়েছে, ফাইনালে সেটিই উপহার দেবে। আশা করি, আমরাই এবার চ্যাম্পিয়ন হব।’

 

তবে নেপালকে হালকাভাবে নিচ্ছেন না বাংলাদেশী কোচ। ফাইনালটা প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও কঠিন হবে বলে মনে করছেন তিনি। তিনি বলেন,‘ নেপাল অবশ্যই ভালো দল। গতকাল শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে ওরা জিতে আরও আত্মবিশ্বাস নিয়ে নামবে। আমাদের তাই সতর্ক হয়েই খেলতে হবে।’

 

এর আগে দুটি বয়সভিত্তিক সাফের অধিনায়ক ছিলেন শামসুন্নাহার। কিন্তু দুবারই বাংলাদেশ হয়েছে রানার্স আপ। নিজের হাতে চ্যাম্পিয়নের ট্রফিটা কোনোবারই তুলে ধরতে পারেননি। এবার সেই অধরা স্বপ্নটা পূরণ করতে চান শামসুন্নাহার। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম লক্ষ্য ছিল ফাইনালে ওঠা। সেটা উঠেছি। এবার চেষ্টা থাকবে ঘরের মাঠে ট্রফিটা রেখে দিতে। সেই লক্ষ্যেই আমরা মাঠে নামব।’

 

 

পূর্বকোণ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট