চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২৫ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১০:০১ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

রানরেটে পিছিয়ে থাকায় জয়ের পরও যুবা টাইগ্রেসদের বিদায়

অষ্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে দুর্দান্তভাবে অনুর্ধ্ব-১৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু করেছিল বাংলাদেশের নারীরা। নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচেও যুবা টাইগ্রেসরা সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে। কিন্তু রানরেটে পিছিয়ে থাকায় তাদের বিশ্বকাপ মিশন এখানেই শেষ করতে হচ্ছে।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ৬৯ রান সংগ্রহ করে সংযুক্ত আরব আমিরাত। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৬৫ বল হাতে রেখেই পাঁচ উইকেটে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। মূলত সুপার সিক্সের প্রথম ম্যাচে পচেফস্ট্রুমে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৫ উইকেটের পরাজয়েই প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছিল সেমির পথ। এরপর সুপার সিক্সের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ জয় পেলেও সেমিফাইনালে পা রাখা হয়নি আর টাইগ্রেসদের।

 

এর আগে শুরুতে ব্যাট করতে নেমেই ধাক্কা খায় আরব আমিরাত। দলীয় ৪ রানে জোড়া উইকেট হারায় তারা। তীর্থ সতীশ ৪ ও সামাইরা ধরনিধারকা রানের খাতা না খুলেই আউট হন। এরপর পাঁচ উইকেট পতনের সময় ৬২ রান তুললেও পরবর্তী ৭ রান তুলতেই অলআউট হয়ে যায় তীর্থ সতীশের দল। বাংলাদেশের হয়ে রাবেয়া খান ৩টি ও মারুফা আক্তার নেন ২টি উইকেট।

ছোট লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ফিরে যান দেশীয় ওপেনার রানি সাহা। এরপর দিশা বিশ্বাসের দল ২১ ও ২২ রানে আরও দুই উইকেট হারায়। তবে শেষ পর্যন্ত রাবেয়া খান ও স্বর্না আক্তারের ৪৬ রানের জুটিতে লক্ষ্য পেরিয়ে যায় টাইগ্রেসরা। ১৯ বলে ৩৮ রানের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস খেলেন স্বর্ণা আক্তার। আমিরাতের পক্ষে ইন্ধুজা নন্দকুমার ও সামাইরা ধরনিধারকা দুটি করে এবং মাহিকা গৌর নেন একটি উইকেট।

 

সুপার সিক্সের ম্যাচ শুরুর পূর্বে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী দলের নেট রান রেট ছিল ০.৭৫৯। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হারায় সেটি নেমে আসে ০.২৬৮’এ। বাংলাদেশকে +২.২১-এর বেশি নেট রান রেট নিয়ে জিততে হত, যা এদিন টস হেরে প্রথমে বোলিং করার কারণে অসম্ভব হয়ে যায়।

 

পূর্বকোণ/এএস/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট