চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

৯ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১২:২৪ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

নেইমারদের বিপক্ষে কখনোই জিততে পারেনি ক্রোয়েশিয়া

এখন পর্যন্ত চারবার মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল ও ক্রোয়েশিয়া। তার মধ্যে বিশ্বকাপের দু’ম্যাচসহ তিনটিতেই জিতেছে সেলেসাওরা, বাকি একটি ম্যাচ ড্রয়ে নিষ্পত্তি হয়েছে। শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) রাতে কোয়ার্টার ফাইনালের আগে যা স্বাভাবিকভাবেই নেইমারদের স্বস্তি জোগাবে।

এদিকে, ২০০২ বিশ্বকাপের পর প্রায় প্রতিটি বিশ্বকাপেই কোয়ার্টারে উত্তীর্ণ হলেও ইউরোপীয় দেশের কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে ব্রাজিলকে। সর্বশেষ ২০১৪ বিশ্বকাপে জার্মানি এবং ২০১৮ সালে বেলজিয়ামের কাছে শোচনীয় পরাজয় হয় দলটির। তাই এবারও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা সেই ইউরোপ-ভীতির জুজু ভাংতে পারবে কিনা সেটি এখন আলোচনার বিষয়।

 

২০০৬ বিশ্বকাপে ব্রাজিল ১-০ গোলে হারায় ক্রোয়াটদের। তারপর স্বাগতিক হয়ে ২০১৪ বিশ্বকাপেও লুকা মদ্রিচদের হারিয়েছে ৩-১ গোলে। অতীত পরিসংখ্যানের কথা জানা আছে এই ক্রোয়াট প্রাণভোমরারও। তবে এবার ইতিহাস বদলানোর আশা করছেন তিনি। মদ্রিচ জানান, ‘বেশ কয়েকবার ব্রাজিলের মুখোমুখি হয়েছি। একবারও জিততে পারিনি। এবার আশা করবো অতীত বদলাতে।’

ক্রোয়েশিয়ার কোচ জ্লাতকো দালিচ অবশ্য এই ম্যাচটাকে ‘ফাইনাল’ হিসেবেই দেখছেন। চার বছর আগে ফ্রান্সের বিপক্ষে খেলা ফাইনালের সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেছেন, ‘আমার মনে হয় এই ম্যাচটা বহুল আকাঙ্ক্ষিত। গত বিশ্বকাপের ফাইনালের সঙ্গে এটাকে তুলনা করতে পারি। ব্রাজিল অসাধারণ প্রতিপক্ষ তাতে সন্দেহ নেই; চ্যালেঞ্জটাও বিশাল।’

অবশ্য অসাধারণ প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হওয়ার আগে নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচের পরিসংখ্যান সবাইকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন ক্রোয়াট কোচ, ‘দুই বিশ্বকাপ মিলে ১১ ম্যাচ খেলেছি। তার মধ্যে পরাজয় দেখেছি একটিতে। আশা করবো এবার সেই অভিজ্ঞতাটা একটু পরে হোক। ছোট দেশ হিসেবে দুই টুর্নামেন্টে সাফল্য দেখেছি। এই পর্যায়ে এসে এখানেই থেমে থাকতে চাই না।’

 

পূর্বকোণ/এএস

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট