চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৮ আগস্ট, ২০১৯ | ১:৩২ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক

দুই মাস সময় চাইলেন মাশরাফি

২০২০ সালের ডিসেম্বরের আগে দেশের মাটিতে কোনো ওয়ানডে নেই বাংলাদেশের। দেশের মাটিতে মাশরাফি বিন মুর্তজাকে বিদায় দিতে এতো লম্বা সময় অপেক্ষা না করে সেপ্টেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে আয়োজনের ভাবনা ছিল বিসিবির। এই প্রস্তাবে না করে দিয়ে দুই মাস সময় চেয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গতকাল শনিবার নতুন কোচের নাম ঘোষণার আগে মাশরাফির সঙ্গে আলোচনা করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। পরে সংবাদ সম্মেলনে জানান, দুটো বিষয় নিয়ে ওয়ানডে অধিনায়কের সঙ্গে বসেছিলেন তিনি।

 

‘সাকিব (আল হাসান) দুই-তিন দিন আগে আমার সঙ্গে বসেছিল। ওর সঙ্গেও আমি কোচ নিয়ে আলাপ করেছি, যেহেতু ও একজন অধিনায়ক। মাশরাফিও একজন অধিনায়ক। আজকে এখানে কোচের নাম ঘোষণার আগে ওর সঙ্গেও কথা হয়েছে। মাশরাফিকেও জানানো হলো। মূলত কোচ নিয়েই আলোচনা হয়েছে।’ ‘আরেকটা ব্যাপার ছিল, আমরা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একটা ওয়ানডে আয়োজন করবো কি না। সেই সিদ্ধান্তর ব্যাপারে ওকে জিজ্ঞেস করেছি। ও মনে করে, এটা খুব দ্রুত হয়ে যায়। আগামী মে মাসের আগে আমাদের কোনো ওয়ানডে নেই। সে জন্য এক্ষুণি না হলে ওর জন্য সুবিধা হয়। ও যদি দুই মাস সময় পায় তাহলে দুই মাস পর সিদ্ধান্ত নিতে চায়।’ ২০২০ ও ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে আগামী দুই বছর প্রচুর টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য যথেষ্ট টেস্টও খেলবে এই সময়ে। ওয়ানডে খেলবে খুব কম। আগামী মে মাসে আয়ারল্যান্ড খেলবে তিনটি ওয়ানডে, পরে ডিসেম্বরে দেশের মাটিতে শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলবে তিনটি ওয়ানডে। সামনে কোনো ওয়ানডে না থাকায় মাশরাফিকে সব দিক ভেবেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দিলেন বিসিবি প্রধান। ‘আমি বলেছি, কোনো সমস্যা নেই। দুই মাস সময় নিক। সামনে যেহেতু আমাদের কোনো ওয়ানডে নেই। ওয়ানডে অধিনায়কত্ব কি হবে, সেটা যখন খেলা হবে তখনই কথা হবে।’

 

এর আগে বিসিবির শীর্ষ কর্তারা যখন অবসরের কথা জানতে চান মাশরাফির কাছে, তিনি বেশ আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন। যেহেতু তিনি অবসর নিয়ে কিছুই ভাবছেন না, বিসিবি বাধ্য হয়েই সেপ্টেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে আয়োজনের পরিকল্পনা বাতিল করে দিচ্ছে। তবে এবার মাশরাফিকে বিদায় দিতে যেভাবে জাঁকাল মঞ্চ আয়োজন করার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল, ভবিষ্যতে পরিস্থিতি এমন নাও থাকতে পারে। এখন থেকে মাশরাফির ফিটনেস, বোলিং-ব্যাটিং-ফিল্ডিং, সবকিছুই যে আতশ কাচের নিচে থাকবে, সেটিও জানিয়ে রাখলেন বিসিবির ওই পরিচালক। শুধু তা-ই নয়, কত দিন মাশরাফির কাঁধে ওয়ানডে দলের ভার রাখা হবে, সেটি নিয়েও ভাবতে শুরু করেছে বিসিবি।

 

মাশরাফিকে বিদায় জানানোর যে উদ্যোগ নিতে চাইছে বিসিবি, এটি অন্য খেলোয়াড়দের জন্যও করা হবে কি না, এ প্রশ্নে বিসিবি সভাপতি নাজমুল জানিয়ে রাখলেন তাঁদের আন্তরিকতায় ঘাটতি নেই। তবে খেলোয়াড় যদি এটি না উপলব্ধি করতে পারে, নিজেদের মতো সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি, ‘এটা শুধু বোর্ড দিয়ে হবে না। খেলোয়াড়ের মাথায়ও চিন্তাটা আসতে হয়। খেলোয়াড় যদি সেভাবে চিন্তা না করে, তাহলে তো লাভ হলো না। আমাদের কাজ হলো জানানো যে আমরা ভালোভাবে, সুন্দরভাবে বিদায় দিতে চাই। এখন সিদ্ধান্ত তার। সে যদি সিদ্ধান্ত নিতে পারে নেবে, না হলে বোর্ড বোর্ডের সিদ্ধান্ত নেবে।’

The Post Viewed By: 141 People

সম্পর্কিত পোস্ট