চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২ নভেম্বর, ২০২২ | ৭:০১ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় সেমিফাইনালের স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের

ভারতের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে লিটন দাশের ঝড়ো ব্যাটিং ম্যাচটি বাংলাদেশের পক্ষে নিয়ে আসে। এরপর বৃষ্টির বাধায় নতুন লক্ষ্য দাঁড়ায় টাইগারদের সামনে। কিন্তু ক্রিজে নেমেই নাজমুল হোসেন শান্ত’র ভুলে লিটন দাশ রান আউট হন। এরপর মিডল অর্ডারদের নিয়মিত বিদায়ে বাংলাদেশের হাত থেকে ম্যাচ ফসকে যায়।

শেষদিকে তাসকিন আহমেদ ও উইকেট কিপার ব্যাটার নুরুল হাসানের চেষ্টা ভারতের সঙ্গে ব্যবধান কমিয়েছে। বাড়িয়েছে উত্তেজনাও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৫ রানের হার নিয়ে সেমিফাইনালে খেলার আশা শেষ হয়ে যায় সাকিবদের।

 

ভারতের দেওয়া ১৮৫ রান তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে বাংলাদেশ। লিটন দাশের ধারালো ব্যাটিংয়ে টাইগাররা প্রথম ৬ ওভারেই ৬০ রান তুলে নেয়। লিটন ২১ বলে অর্ধশতক তুলে নেওয়ার পর বাংলাদেশ ৭ ওভার শেষে সংগ্রহ করে ৬৬ রান। এরপর নামে অঝোর বৃষ্টি। দর্শকরা হয়তো ভাবতে পারেননি বৃষ্টি থামলেই কাদতে হতে পারে তাদের।

প্রায় আধঘণ্টার বৃষ্টি থামলে বাংলাদেশের সামনে নতুন লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৬ ওভারে ১৫১ রান। ফলে ম্যাচ জিততে হলে ৫৪ বলে ৮৫ রান দরকার ছিল লিটনদের। কিন্তু দুই ওপেনার নতুন করে ক্রিজে নেমেই ছন্দ হারিয়ে বসেন। ঝুঁকিপূর্ণ দু’রান নিতে গিয়ে লিটনের উইকেট কাটা পড়ে। মাত্র ১৬ রান পরেই মোহাম্মদ শামিকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে সূর্যকুমার যাদবকে ক্যাচ দেন শান্ত। ২৫ বলে ২১ রান করে ফেরেন তিনি।

 

এরপর আরও ২৪ রান তুলতেই বাংলাদেশ ৪ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় চলে যায়। ফলে ম্যাচের পেন্ডুলাম ঘুরে যায় ভারতের দিকে। তখন ১৯ বলে সাকিবদের দরকার ছিল ৪৩ রান। ম্যাচে তাদের হার প্রায় নিশ্চিতই ছিল। তবে তখনও নাটকীয়তার কিছুটা বাকি। নুরুল হাসান সোহানের ১৪ বলে ২৫ এবং তাসকিনের ৭ বলে ১২ রানের ইনিংস কিছুটা হলেও জয়ের আশা তৈরি করে। ভারতের হয়ে হার্দিক পান্ডিয়া, আরশদিপ সিং ২টি এবং শামি নেন একটি উইকেট।

এর আগে ভারত নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৮৪ রান সংগ্রহ করে। লোকেশ রাহুল ও বিরাট কোহলির অর্ধশতকে চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করে তারা। বোলিংয়ে বাংলাদেশের হাসান মাহমুদ তিনটি এবং সাকিব আল হাসান নিয়েছেন দুটি উইকেট।

 

পূর্বকোণ/এএস/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট