চট্টগ্রাম শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২৫ অক্টোবর, ২০২২ | ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব ক্রীড়া প্রতিবেদক

ইরানকে নিষিদ্ধের দাবিতে ফিফাকে চিঠি

কাতারের ফুটবল বিশ্বকাপের বাকি সময়ের হিসেবে আর মাত্র ২৬ দিন। প্রতিটি দলই শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত। সেখানে কিনা নিজেরাই নিজেদের পেছনে লেগেছে ইরানের ফুটবলার এবং ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা। নিজেরাই ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার কাছে চিঠি পাঠিয়ে বিশ্বকাপে ইরানকে নিষিদ্ধ করতে আবেদন করেছে।

 

কেবল ইরান জাতীয় দলকে বিশ্বকাপে নিষেধাজ্ঞা নয় একই সঙ্গে দেশটির ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য পদ স্থগিত করতেও ফিফার কাছে আবেদন করেছে ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট সংস্থাটি। স্পেনের আইনজীবী ফার্ম রুইজ-হুয়ের্তা অ্যান্ড ক্রেসপোর মাধ্যমে ফিফা বরাবর চিঠি পাঠিয়েছে তারা। ফুটবল ম্যাচ চলাকালে স্টেডিয়ামে নারীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইরান সরকার। তারই প্রেক্ষিতে এমন আত্মাহুতিমূলক চিঠি ফিফা বরাবর প্রেরণ করেছে।

 

বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ‘আইনি প্রতিষ্ঠান রুইজ-হুয়ের্তা অ্যান্ড ক্রেসপোর মাধ্যমে ইরানের ফুটবল এবং অন্যান্য খেলাধুলার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিত্বরা মিলে ফিফা এবং তার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। সেখানে ইরানের ফুটবল ফেডারেশনকে তাৎক্ষণিকভাবে নিষিদ্ধ করার দাবি করা হয় এবং তা ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপ থেকেই কার্যকরের অনুরোধ করা হয়েছে।’

 

নিজেদের নিষিদ্ধ করতে ইরানের যে সংস্থাটি চিঠি দিয়েছে, তারা জানিয়েছে, ‘যদি নারীদের স্টেডিয়ামে প্রবেশের অনুমতি না দেওয়া হয় এবং ইরানের ফুটবল ফেডারেশন কেবলমাত্র সরকারী নির্দেশ অনুসরণ এবং প্রয়োগ করে। তবে সেই সংস্থাকে স্বাধীন দাবি করা যায় না। এটা স্পষ্টতই ফিফার আইনের লঙ্ঘন।’

 

প্রসঙ্গত, হিজাব নীতি না মানায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর মাসা আমিনি নামের এক তরুণী দেশটির পুলিশের হেফাজতে নিহত হন। এর পর থেকে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে ইরানে। সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, চলমান এ বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত প্রায় ২০০ মানুষ মারা গেছেন। এরই প্রতিবাদে ইরানকে বিশ্বকাপ থেকে নিষিদ্ধ করার অনুরোধ করা হয়েছে ফিফার কাছে। ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া কাতার বিশ্বকাপে ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে এশিয়ার এই দলটি। যেখানে তাদের সঙ্গে গ্রুপে আরও রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট