চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

৫ অক্টোবর, ২০২২ | ৯:২৩ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৭ বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচে সিঙ্গাপুরকে ২-১ গোলে হারালো বাংলাদেশ

এএফসি অনুর্ধ্ব-১৭ বাছাইপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সিঙ্গাপুরকে ২-১ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। বুধবার (৫ অক্টোবর) কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হয় ম্যাচটি । র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকলেও ম্যাচ শুরুর আগে থেকেই স্বাগতিক হিসেবে বাংলাদেশকে সমীহ করছে সিঙ্গাপুর।

কমলাপুর শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৭ এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে ‘ই’ গ্রুপে সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে  বাংলাদেশের দুটি গোলই এসেছে আত্মঘাতী থেকে। সিঙ্গাপুরকে সমতায় ফেরান মুহাম্মদ শাইজোয়ান। দিনের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ৮-০ গোলে উড়িয়ে দেয় ইয়েমেন।

গত সেপ্টেম্বরে অনূর্ধ্ব-১৭ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ খেলে আসা দলই খেলছে এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে। সাফের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিলেও সারা বছর যে মাঠে অনুশীলন করে সেই কমলাপুরে এশিয়ান কাপের বাছাই হওয়ায় ইমরান-মিরাজদের নিয়ে প্রত্যাশা ছিল অনেক। সেই প্রত্যাশা খানিকটা হলেও পূরণ করেছে ইমরান-মিরাজরা। কমলাপুরের টার্ফে বেশ ভুগতে দেখা গেছে সিঙ্গাপুরের ফুটবলারদের। দ্বিতীয়ার্ধে তাদের বেশ কয়েকজন ফুটবলার চোট পেয়ে টার্ফে পড়ে যেতে দেখা যায়।

ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে সিঙ্গাপুর গোলরক্ষক আইজ্যাক লি বাধা হয়ে না দাঁড়ালে এগিয়ে যেতে পারত বাংলাদেশ। ফরোয়ার্ড নাজিম উদ্দিনের শট আটকে যায় প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের গায়ে। অবশ্য দশম মিনিটেই সাফল্য তুলে নেয় বাংলাদেশের যুবারা। বক্সের বাইরে থেকে নাজিম উদ্দিন ক্রস করেছিল বক্সে থাকা মিরাজুল ইসলামের দিকে। নাজিমের সেই ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে বল জড়ায় সিঙ্গাপুর ডিফেন্ডার ব্রেয়ডেন গোহ। ১৫তম মিনিটে আবার সুযোগ বাংলাদেশের সামনে। ডান প্রান্ত থেকে মিরাজুলে কোনাকুনি শট ঠেকায় প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক।  

২০তম মিনিটে অল্পে রক্ষা পায় বাংলাদেশ। সিঙ্গাপুর মিডফিল্ডার জোনান টানের কাটব্যাক বাংলাদেশ অধিনায়ক ইমরান খানের পায়ে লেগে পোস্টে ঢোকার মুখে হেডে বিপদমুক্ত করে সিরাজুল ইসলাম রানা। ২৬তম মিনিটে মিরাজুলের বাঁকানো ফ্রি কিক অল্পের জন্য খুঁজে পায়নি জাল। পরের মিনিটের মিরাজের আরেকটি শট ফেরায় সিঙ্গাপুর গোলরক্ষক। বাংলাদেশের আক্রমণ ঠেকিয়ে প্রতি আক্রমণে গিয়ে ২৮ মিনিটে সমতায় ফেরে সিঙ্গাপুর। রাসুল রামলির পাস থেকে মুহাম্মদ শাইজোয়ান দূরপাল্লার শটে টপ কর্নারে বল জালে জড়ায়। লাফিয়েও বলের নাগাল পায়নি গোলকিপার সোহান।

দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের অর্ধে খেলতে থাকে সিঙ্গাপুর। এই সুযোগে সিঙ্গাপুরের রক্ষণে বারবার হানা দেয় বাংলাদেশ। কিন্তু চার পরিবর্তন করেও দুর্ভেদ্য গোলের দেখা পাচ্ছিল না। কিন্তু তখনো নাটকীয়তার ছিল বাকি। নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে অতিরিক্ত আট মিনিটের মাথায় আত্মঘাতী গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ। রাতুলের লম্বা কর্নার সিঙ্গাপুরের এক ফুটবলারের মাথায় লেগে বল যাচ্ছিল পোস্টের দিকে। সিঙ্গাপুর গোলকিপার ইসাক লি হাওয়ায় ভাসানো বল গ্রিপে নিতে না পারায় বল চলে যায় জালে। এতে আনন্দে ভাসে বাংলাদেশের যুবারা। এই জয়ে এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের মূল পর্বে যাওয়ার আশা জিইয়ে রাখল বাংলাদেশ। যুবাদের এই ম্যাচ মাঠে বসে দেখেছেন জাতীয় দলের কোচ হাভিয়ের কাবরেরা। এ ছাড়াও ছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন ও বসুন্ধরা কিংসের কোচ অস্কার ব্রুজোন। আগামী শুক্রবার ভুটানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

পূর্বকোণ/রাজীব/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট