চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ৩:০৯ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

সবাই আমাকে বিশ্বাস করেছে : মিরাজ

গেল এশিয়া কাপের ম্যাচে মেহেদী হাসান মিরাজকে টাইগার টিম ম্যানেজমেন্ট ওপেনিং পজিশনে খেলতে দেয়। শেষ তিন টি-টোয়েন্টিতে সাব্বির রহমানের সঙ্গে মিরাজই নেমেছেন ওপেনিংয়ে। প্রতিবার আস্থার প্রতিদানও দিয়েছিলেন মিরাজ। এ তিন ম্যাচে মেহেদি মিরাজ খেলেছেন যথাক্রমে ২৬ বলে ৩৮, ১৪ বলে ১২ ও ৩৭ বলে ৪৬ রানের ইনিংস। তার পারফরম্যান্সে খুশি দলের ব্যাটিং পরামর্শক জেমি সিডন্স।

মঙ্গলবার আমিরাতের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের পর সিডন্স বলেছেন, ‘মিরাজ বেশ ভালোভাবে এগিয়ে এসেছে। ওর আত্মবিশ্বাস এখন উঁচুতে। আমি ওকে টেস্ট ও ওয়ানডেতে দেখেছি ভালো ব্যাট করতে। সে এখন যা করছে তা পারবে আমি জানতাম। এখন শুধু ওকে বাড়তি লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে টপঅর্ডারে নেমে শট খেলার।’

নিজের এমন ভালো খেলার পেছনে টিম ম্যানেজম্যান্টকে তার উপর বিশ্বাস রাখার বিষয়কেই এগিয়ে রাখছেন মিরাজ। সবাই তার উপর বিশ্বাস রাখায়, নিজের মধ্যেই এই বিশ্বাসটা চলে এসেছিল বলে মনে করেন নতুন এই ওপেনার। গতকাল ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমে এসব কথা জানান তিনি।

এ নিয়ে মিরাজ বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে। সবচেয়ে বড় কথা আমাকে বিশ্বাস করা হয়েছে। যখন আমাকে বিশ্বাস করা হয়েছে তখন আমিও নিজেকে বিশ্বাস করতে বাধ্য হয়েছি। তাই এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল যে সবাই আমাকে বিশ্বাস করেছে এবং সবার বিশ্বাস থেকে আমার নিজেরও বিশ্বাস চলে আসে।’

ওপেনিংয়ে নেমে প্রথম কাজটায় আমার ছিল ইমপ্যাক্ট রাখা দলের প্রতি। আমার কাছে দল বড় কিছু চায়নি, দলের জন্য যেনো ছোট ছোট অবদান রাখতে পারি এটায় চেয়েছিল।

মিরাজ বলেন, ‘আমি বড় রান করবো কি করবো না এটা নিয়ে ম্যানেজম্যান্ট চিন্তিত ছিল না। আমার কাছ থেকে চেয়েছিল আমি যেন ইমপ্যাক্ট করি, দলের জন্য ছোট ছোট অবদান রাখি। সেটা আমার জন্যও ভালো হবে, দলের জন্যও ভালো হবে।’

এছাড়া টিম ম্যানেজমেন্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে মিরাজ বলেন, ‘টিম ম্যানেজমেন্টকে ধন্যবাদ। তারা আমাকে বিশ্বাস করেছে যে আমি ওপেনিং করলে হয়তো ভালো হবে। আমি দেশে যখন খেলেছি কাজ করেছি, জেমিও আমার সঙ্গে কিছুদিন কাজ করেছেন ইনডোরে-আউটডোরে। ওখান থেকে আত্মবিশ্বাসটা পেয়েছি। এর আগে যেহেতু বিপিএলে খেলার একটা অভিজ্ঞতা আছে, সেখান থেকেও আত্মবিশ্বাস পেয়েছি। বিশ্বকাপের আগে আমাদের একটা ভালো পজিশন আছে। যেহেতু একটা সিরিজ জিতেছি, সবাই আত্মবিশ্বাসী এখন। যদি আমাকে সুযোগ দেওয়া হয়, অবশ্যই কাজে লাগাবো।’

এদিকে মিরাজের এমন ব্যাটিং নিয়ে ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমে টাইগার ব্যাটিং কনসালট্যান্ট জেমি সিডন্স বলেন, ‘মিরাজ বেশ ভালোভাবে এগিয়ে এসেছে। ওর আত্মবিশ্বাস এখন উঁচুতে। আমি ওকে টেস্ট ও ওয়ানডেতে দেখেছি ভালো ব্যাট করতে। সে এখন যা করছে তা পারবে আমি জানতাম। এখন শুধু ওকে বাড়তি লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে টপঅর্ডারে নেমে শট খেলার।’

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন