চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১

২৮ জুলাই, ২০১৯ | ২:৩০ পূর্বাহ্ণ

হুমায়ুন কবির কিরণ

‘দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে, কামব্যাক করবো’

লংকানদের বিরুদ্ধে ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ টাইগারদের আজ

বাংলাদেশ চেয়েছিল জয় দিয়ে শুরু করতে। কিন্তু হলো উল্টো, শুধু হারই নয়, প্রতিটি বিভাগেই নাকাল হতে হয়েছে তামিম ইকবালদের। শ্রীলংকার বিরুদ্ধে ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে প্রথমটি শেষে তাই ০-১ এ পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশকে আজ দ্বিতীয় ওয়নডেতেই জিততেই হবে। আজও উল্টো হলে সিরিজি চলে যাবে স্বাগতিক শ্রীলংকার ঝুলিতে। নিশ্চিতভাবেই টাইগাররা আজকের ম্যাচটি ‘ডু অর ডাই’ হিসাবেই খেলবেন। তাতে শ্রীলংকার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে লাল-সবুজের পতাকা উড়লে কক্ষপথে ফিরবে টাইগার ক্রিকেট। প্রথম ওয়ানডে মতো, আজকের ম্যাচটিও দিবা-রাত্রীর। খেলা শুরু হবে বিকাল ৩টায়, বিটিভির সাথে মাছরাঙা, জিটিভি ও সনি সিক্স আজকের ম্যাচটিও সরাসরি সম্প্রচার করবে। জয় দিয়ে ওয়ানডেতে নেতৃত্বের অভিষেক রাঙাতে চেয়েছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু বিদায়ী তারকা লাসিথ মালিঙ্গার দিনে পারলেন না সেই লক্ষ্য ছুঁতে। তাই আজ জিতে সিরিজে ফিরতে চান বাংলাদেশ অধিনায়ক। বিশ্বকাপে সময়টা ভালো কাটেনি। নতুন দায়িত্ব পেয়ে চেয়েছিলেন বিশ্বকাপের দুঃস্বপ্ন ভুলে যেতে। কিন্তু মালিঙ্গার

ইয়র্কারে ভূপাতিত হয়ে নিজে ফিরেছেন শূন্য রানে। দলও ব্যর্থ। সব মিলিয়ে খারাপ সময় যেন পিছু ছাড়ছে না দেশের অন্যতম এই ব্যাটসম্যানের। তবে দলের ব্যর্থতার দায় সঙ্গে নিয়েই সামনের দিকে আগাতে চান বাঁহাতি এই ওপেনার। তামিম ইকবাল বলেন, ‘আরো দুই খেলা বাকি, আশা করছি আরো ভালো করতে পারব। যে স্কোয়াড নিয়ে খেলছি তাদের নিয়ে আমি খুশি। তাদের ওপর ভরসা করতে হবে। তাদের সামর্থ্য আছে। কেবল দায়িত্ব নিতে হবে। আশার কথা হলো আমরা এখনো লড়াইয়ে আছি।’ শ্রীলঙ্কা সফরে বাজে হারে শুরু করেছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৯১ রানের বড় ব্যবধানে হার। যদিও বিশ্বকাপের পর নিয়মিত কোচ ও বেশ কয়েকজন তারকা ক্রিকেটার ছাড়া এই সফর করেছে টাইগাররা। তবে পরের ম্যাচে জিতে সিরিজ সমতায় ফেরার আশা প্রকাশ করেছেন হেড কোচের দায়িত্ব পালন করা খালেদ মাহমুদ সুজন। তিনি বলছেন, দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে, কামব্যাক করবই। আজকের ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ দলের ভারপ্রাপ্ত কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘ম্যাচ হারলে কারোরই ভালো লাগে না, ছেলেদেরও তেমনি ভালো লাগেনি। তবে আমাদের সুযোগ আছে। একটা ম্যাচ শেষ হয়েছে, আরও দুটি ম্যাচ বাকি আছে। অবশ্যই আমরা আগামীকালের (আজ) ম্যাচটা জিততে চাই। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের যোগ্যতা না থাকলে আমি উত্তরটা দিতাম না। ইনশাআল্লাহ আমরা সিরিজে ফিরবো।’ এদিকে দ্বিতীয় ম্যাচে দলের একাদশে পরিবর্তন নিয়ে কথাবার্তা শুরু হয়েছে। এ নিয়ে সুজন বলেন, ‘আমরা সেরা একাদশটা বাছাই করেছি। আমি মনে করি, এই ছেলেরাই আরও ভালো করতে পারে। পরিবর্তনের কথাটা আমরা এখনো চিন্তা করিনি। সবসময় পরিবর্তন যে ভালো হয় তা নয়, আবার ভালোও হয়। প্রথম ম্যাচে আমরা এটাকেই সেরা দল হিসেবে ভেবেছি এবং এই দলে বিশ্বাস রাখতে চাই।’ প্রথম ম্যাচের ঘাটতির জায়গাগুলোও চিহ্নিত করেন সুজন। বলেন, ‘আমরা বোলিংও ভালো করিনি, ব্যাটিংও ভালো করিনি। দুই ক্ষেত্রেই আমাদের শুরুটা ভালো হয়নি। তবে পজিটিভ জায়গাও আছে। একটা সময় মনে হয়েছিল, ওরা (শ্রীলঙ্কা) ৩৬০ বা ৩৭০ রান করবে। শেষ পর্যন্ত সেটা বোলাররা হতে দেয়নি। এটা একটা পজিটিভ দিক।’
শ্রীলঙ্কার মাটিতে এখনো পর্যন্ত সিরিজ জেতা হয়নি বাংলাদেশের। তবে বিশ্বকাপে দারুণ পারফরম্যান্সের পর এবার অনেকেই আশা করেছিল এই দফায় হয়ে যাবে। কিন্তু প্রথম ম্যাচে হেরে সেটা কী শেষ? সুজন বলছেন, ‘আগে তো কালকের (আজ) ম্যাচটা জিতি, তারপর বলব। প্রথম ম্যাচ হেরেছি বলে সবশেষ হয়নি, কালকের (আজ) ম্যাচটা যদি জিততে পারি, তাহলে আমাদের সুযোগ থাকছেই। শ্রীলঙ্কার মাটি সবসময়ই কঠিন, তবে এমন কঠিন না যে, তা অতিক্রম করা যাবে না। বাংলাদেশের এই দলটারই সেই সক্ষমতা আছে অতিক্রম করার।’
অন্যদিকে প্রথম ওয়ানডে জয়, অবসরের দিনে লাসিথ মালিঙ্গার দূর্দান্ত পারফরম্যান্সের পর প্রশংসার জোয়ারে ভাসছে শ্রীলংকা। তাই ছন্দ ধরে রেখে আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চান অধিনায়ক দিমুথ করুনারতেœ। তিনি বলেন, ‘গেল কয়েক মাস ধরে ছেলেরা ভালো পারফরমেন্স করছে। বিশ্বকাপে এবং সর্বশেষ ম্যাচেও ভালো করেছে। তারা শতভাগ দিচ্ছে। আমরা সঠিক পথেই রয়েছি। তবে আমাদের কিছু জায়গায় উন্নতির প্রয়োজন রয়েছে। আমরা প্রথম ম্যাচে ব্যাটিং ভালো করেছি, বোলাররাও ভালো করেছে। জয়ের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে সিরিজ জিততে চাই আমরা।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 305 People

সম্পর্কিত পোস্ট