চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

২৪ জুলাই, ২০১৯ | ১:৩৭ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের জয়

প্রস্তুতি ম্যাচে জয় দিয়েই শ্রীলংকা সফর শুরু করেছে বাংলাদেশ দল। নতুন বলে উইকেট না পাওয়াটা বিশ্বকাপে বেশ ভুগিয়েছে বাংলাদেশকে। শ্রীলংকায় প্রস্তুতি ম্যাচে নতুন বলে উইকেট পেলেন রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদ। মাঝের ওভারগুলোতে উইকেট এনে দিলেন সৌম্য সরকার। ব্যাটিংয়ে দলকে টানলেন মোহাম্মদ মিথুন। তিনে নেমে দারুণ এক ইনিংসে জেতালেন বাংলাদেশকে। শ্রীলংকা বোর্ড সভাপতি একাদশকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে তামিম ইকবালের দল। ২৮৩ রানের লক্ষ্য ১১ বল বাকি থাকতে ছুঁয়ে ফেলে তারা। ব্যাটিংয়ের চেয়ে বোলিং নিয়ে বাংলাদেশের ভাবনা বেশি। তাই আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছিল শুরুতে বোলিং করবে। সফরাকারীদের চাওয়া পূরণ করতে টসে জিতে ব্যাটিং নেন নিরোশান ডিকভেলা।
কলম্বোর পি সারা ওভালে গতকাল মঙ্গলবার ম্যাচের তৃতীয় বলে অধিনায়ক ডিকভেলাকে এলবিডব্লিউ করে বিদায় করেন পেসার রুবেল। পরে তুলে নেন ওশাদা ফার্নান্দোর উইকেট। দ্রুত রান তোলার চেষ্টায় থাকা দানুশকা গুনাথিলাকাকে থামান আরেক পেসার তাসকিন। আট ওভারের মধ্যে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে ফেরত পাঠায় বাংলাদেশ। ম্যাচে নয় বোলার ব্যবহার করেন তামিম। অনেক দিন পর এই ম্যাচেই প্রথমবারের মতো বোলিং করেন মাহমুদউল্লাহ। ৩ ওভারে ১৫ রান দিয়ে থাকেন উইকেটশূন্য। ভানুকা রাজাপাকসাকে ফিরিয়ে ৮২ রানের জুটি ভাঙেন সৌম্য। পরে থামান ৬ চারে ৫৬ রান করা শিহান জয়াসুরিয়াকে। সাতে নেমে বিস্ফোরক এক ইনিংসে দলকে ২৮২ পর্যন্ত নিয়ে যান দাসুন শানাকা। ৬৩ বলে ছয়টি করে ছক্কা ও চারে এই বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান অপরাজিত থাকেন ৮৬ রানে। অনিয়মিত পেসার সৌম্য ২৯ রানে নেন ২ উইকেট। রুবেল ২ উইকেট নেন ৩১ রানে।
রান তাড়ায় সাবধানী শুরু করেন সৌম্য। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে খেলেন তামিম। গতিময় পেসার লাহিরু কুমারার বলে ক্যাচ দিয়ে সৌম্যর বিদায়ে ভাঙে ৪৫ রানের উদ্বোধনী জুটি। ৬ চারে ৩৭ রান করা তামিমকেও ফেরান কুমারা। ক্রিজে গিয়েই শট খেলতে থাকেন মুশফিকুর রহিম। শুরু থেকেই আস্থার সঙ্গে খেলছিলেন মিথুন। দ্রুত জমে যায় তাদের জুটি। পঞ্চাশ ছুঁয়ে ফিরেন মুশফিক। ৪৬ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায় করেন ৫০ রান। ভাঙে ৭৩ রানের জুটি। মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে আরেকটি পঞ্চাশ ছোঁয়া জুটিতে দলকে টানেন মিথুন। তিন চারে ৩৩ রান করা মাহমুদউল্লাহকে ফিরিয়ে ৯৬ রানের জুটি ভাঙেন আকিলা দনাঞ্জয়া। দলকে জয়ের কাছে নিয়ে ফিরেন মিথুন। ৯ রানের জন্য পাননি তিন অঙ্কের দেখা। সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে তিনে নেমে ১০০ বলে খেলা তার ৯১ রানের ইনিংস গড়া ১১ চার ও ১ ছক্কায়। মোসাদ্দেক হোসেনকে নিয়ে বাকিটা সহজেই সারেন সাব্বির। ৩১ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। চার হাঁকিয়ে ম্যাচ শেষ করা মোসাদ্দেক করেন ১৫ রান। আগামী শুক্রবার আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে হবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 215 People