চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১

সর্বশেষ:

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১২:৫৯ অপরাহ্ণ

মিটু বিভাস 

হাজারো শিশুর কলকাকলিতে মুখরিত সাগরিকা বিকেএসপি

গত সাত বছর ধরে চট্টগ্রামের পথহারা শিশুদের জন্য গড়ে উঠা ‘উপলব্ধি’ সংগঠন তানিয়া আক্তারের একমাত্র আশ্রয়স্থল। ১২ বছরের এতিম এ শিশুর চোখেমুখে এখন রাজ্যের স্বপ্ন। ক্রীড়ায় সুন্দর আগামী নির্মাণের লক্ষ্যে নিয়ে বাছাই পরীক্ষায় অংশ নিতে সাগরিকা বিকেএসপি কেন্দ্রে এসেছিল তানিয়া ও তাঁর সতীর্থরা। তানিয়ারা জানে বিকেএসপিতে ভর্তি হতে পারলে স্বপ্নের সিঁড়ি বেয়ে আরো একধাপ এগিয়ে যাবে তারা। গত দুইদিন ধরে তানিয়ার মত হাজারো শিশুর কলকাকলিতে মুখরিত ছিল সাগরিকা। বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাধারণ শিক্ষাসহ দীর্ঘমেয়াদি বিজ্ঞানভিত্তিক প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় সৃষ্ঠির লক্ষ্যে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে নিয়মিত প্রশিক্ষণার্থীদের চট্টগ্রাম কেন্দ্রের প্রাথমিক বাছাই শেষ হয়েছে গতকাল। জাতীয় ক্রীড়াঙ্গনে একসময় উজ্জ্বল পদচারণা ছিল চট্টগ্রামের।

পরবর্তীতে ধীরে ধীরে চট্টগ্রামের প্রতিনিধিত্ব কমে আসছিল। ভবিষ্যত ক্রীড়াবিদদের স্বপ্নের ঠিকানা বিকেএসপির চট্টগ্রাম কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার পর আশার আলো দেখেছিলেন স্থানীয় ক্রীড়া সংগঠকরা। কিন্তু নানাবিধ কারণে শুরুর দিকে সে প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। শুরুর সে শংকা কাটিয়ে এখন সামনে এগিয়ে চলার পথ। গত দুইদিনে প্রাথমিক বাছাই কার্যক্রমে প্রশিক্ষাণার্থীদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে সেটারই ইঙ্গিত দিচ্ছে। চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে এবার রেকর্ড সংখ্যক ১,১৬১ জন প্রার্থী প্রাথমিক বাছাইয়ে অংশ নিয়েছে। এরমধ্যে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ৮০২,  ফুটবলে ২০০ এবং হকিতে ৪৭ জন প্রার্থী অংশ নেয়। মোট ১৯টি ইভেন্টে প্রত্যেকটিতে একাধিক প্রার্থী প্রাথমিক বাছাইয়ে অংশ নিয়েছে। শুধু জেলা নয়, চট্টগ্রাম বিভাগের ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর, কুমিল্লা, ফেনী, পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবানের দুর্গম পাহাড়ি এলাকা থেকেও বাছাইয়ে অংশ নিতে হাজির হয়েছিল প্রার্থীরা। প্রাথমিক বাছাইয়ে অংশ নিয়েছে চট্টগ্রামে প্রত্যন্ত অঞ্চলে গড়ে উঠা বিভিন্ন স্পোর্টস একাডেমির ছাত্র-ছাত্রীরা।

চট্টগ্রাম অংকুর সোসাইটি স্কুলের ছাত্রী তাসফিয়া এসেছেন শুটিংয়ে পরীক্ষা দিতে। বাংলাদেশের হয়ে স্বর্ণজয়ী সাদিয়া, দিশাদের উত্তরসূরী হতে চায় সে। প্রথমবারের মত শুটিংয়ে পরীক্ষা দিতে আসা এ ক্ষুদে শুটারের স্বপ্ন ক্রীড়ায় দেশকে আরো এগিয়ে নেয়ার। বিকেএসপি চট্টগ্রাম কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে পেরে উৎফুল্ল তাসফিয়ার মতো হাজারো শিশু। যদিও চট্টগ্রাম কেন্দ্রে এখনো মেয়েদের ভর্তির কোন সুযোগ নেই। সারাদেশ থেকে ১৯টি ইভেন্টে বাছাইকৃত প্রতিযোগীদের ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন কেন্দ্রে ভর্তির সুযোগ দিবে বিকেএসপি। বাছাইয়ের প্রথম দিনে ৯২৭ জন এবং শেষদিনে ২৩৪ জন প্রতিযোগী বাছাইয়ে অংশ নিয়েছেন।

বিকেএসপি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক আবু তারেক পূর্বকোণকে বলেন, চট্টগ্রাম কেন্দ্রে এবার রেকর্ড সর্বোচ্চ সংখ্যক প্রতিযোগী অংশ নিয়েছে। গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত নারীদের বিশেষ প্রশিক্ষণ বাছাইয়ের মতোই এবারও চট্টগ্রামের প্রতিযোগীরা ভাল ফলাফল করবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। আগামী ৫ ও ৬ মার্চ ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে শেষ হবে বিকেএসপির এ বাছাই কার্যক্রম।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 372 People

সম্পর্কিত পোস্ট