চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১

৩ জুন, ২০১৯ | ২:৪৩ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

অভিজাত রেকর্ডের চূড়ায় সাকিব

মাত্র একটি উইকেট দরকার ছিল সাকিব আল হাসানের। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিজের প্রথম ম্যাচে ওপেনার এইডেন মারকামকে ফিরিয়ে আরো একটি বিশ্বরেকর্ডে নাম লেখালেন টাইগারদের রেকর্ডম্যান সাকিব। ওয়ানডেতে দ্রুততম ৫ হাজার রান ও ২৫০ উইকেট শিকারি এখন তিনি। পাঁচ হাজার রান ও ২৫০ উইকেট নিতে সাকিব খেলছেন ১৯৯ ম্যাচ। ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে আর কোনো ক্রিকেটার এতো দ্রুত এই মাইলফলক স্পর্শ করতে পারেননি। ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত মাত্র চারজন ক্রিকেটার পাঁচ হাজার রান ও আড়াইশ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে এই রেকর্ড করেন পাকিস্তানের আবদুল রাজ্জাক (২৩৪ ম্যাচ), এরপরেই রয়েছেন আরেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি। তিনি ২৭৩ ম্যাচ খেলে এই মাইলফলক স্পর্শ করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার জ্যাক ক্যালিস ২৯৬ ম্যাচে ও শ্রীলংকার কিংবদন্তি অলরাউন্ডার সনৎ জয়াসুরিয়া ৩০৪ ম্যাচে এই মাইলফলক ছোঁয়ার কৃতিত্ব দেখান। এরআগে হেসেছে সাকিবের ব্যাটও। ৮৪ বলে ৭৫ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেছেন তিনি।
আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজেই মাইলফলক ছোঁয়ার সুযোগ ছিল সাকিবের। কিন্তু ওই সিরিজের শেষ দুই ম্যাচে উইকেটশূন্য থাকেন এবং ইনজুরির কারণে ফাইনালে খেলতে পারেননি। গতকাল বিশ্বকাপের মঞ্চেই বিশ্বসেরাদের পেছনে ফেললেন।
এর আগে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে নেমেও একাধিক রেকর্ডে নাম লেখান সাকিব। ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে টানা তিনটি বিশ্বকাপে আইসিসির অলরাউন্ডার টেবিলের শীর্ষে থেকে শুরু করেন টাইগার তারকা। ওভাল ম্যাচে সাকিব ছুঁয়েছেন কীর্তি-রেকর্ডের আরও দুটি পালঙ্ক। নামার আগে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে তার মোট রান ছিল ১০৯৯৫। ব্যক্তিগত ৫ রানের সময় দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে ১১ হাজারি রানের ক্লাবে নাম লিখিয়েছেন তিনি। সাকিবের সামনে কেবল তামিম ইকবাল (১২৫৯২ রান)। অন্য রেকর্ডটিতে সাকিবের সঙ্গী মুশফিকও। দেশের হয়ে সর্বোচ্চ পাঁচটি শতরানের জুটির রেকর্ড ছুঁয়েছেন দুজনে। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ৯৫ বলে জুটিতে শতরান পূর্ণ করেছেন সাকিব-মুশফিক। এটি তাদের যৌথ প্রযোজনায় বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে পঞ্চম সেঞ্চুরি জুটি।

বিজ্ঞাপন

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 258 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট