চট্টগ্রাম সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ | ৩:০১ পূর্বাহ্ন

ইসমাইল হোসেন মানিক হ মানিকছড়ি

৮ বছরেও চালু হয়নি ছাত্রাবাস

নির্মাণের আট বছরেও চালু হয়নি মানিকছড়ি উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য নির্মিত একমাত্র ছাত্রাবাসটি। এখন পর্যন্ত নিয়োগ করা হয়নি কোন জনবল। এ কারণে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ছাত্রাবাসের প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র ও অন্যান্য সরঞ্জাম। দীর্ঘদিন যাবত ব্যবহার না হওয়ায় নষ্ট হয়েছে পানির মোটর ও জেনারেটর। ভবনের বিভিন্ন স্থানে মরিচা ধরার পাশাপাশি ফাটল ধরেছে।

প্রাথমিক শিক্ষার্র্থীদের ঝরে পড়া রোধ করতে এবং দুর্গম এলাকার শিশুদের কথা বিবেচনা করে ১ কোটি ৬৭ লক্ষ ৩৬ হাজার টাকা ব্যয়ে ২০১১ সালে নির্মাণ করা হয় রাজবাড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রাবাসটি। ছাত্রাবাসে রয়েছে ৮০ জন শিক্ষার্থীর প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের জন্য ছাত্রাবাসে বিশ্রাম, পড়াশোনা, খাওয়া-দাওয়া এবং খেলাধুলার জন্য আলাদা ব্যবস্থা। লোডশেডিংয়ের কথা মাথায় রেখে ব্যবস্থা রাখা হয়েছে সৌর বিদ্যুতেরও। আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা থাকা সত্ত্বেও শিক্ষার্থীদের কোন কাজে আসছে না ছাত্রাবাসটি।

এতে বেশ হতাশ অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজবাড়ি মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ক্যজ মারমা বলেন, এ বিষয়ে একাধিকবার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করলেও কোন কাজে আসেনি। ছাত্রাবাসটি চালু হওয়া খুবই জরুরি। বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও মানিকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক বলেন, নির্মাণের ৮ বছর পার হলেও ছাত্রাবাসটি চালু না হওয়া অত্যন্ত দুঃখজনক। তিনি আরও বলেন, ছাত্রাবাসটি চালু হলে ওইসব দুর্গম এলাকার অভিভাবক

ও শিক্ষার্থীদের আশাপূরণ হবে। পাশাপাশি অত্র এলাকার শিক্ষার মানোন্নয়নে ছাত্রাবাসটি চালু করা খুবই জরুরি বলে দাবি করেন তিনি। জেলা পরিষদ সদস্য এমএ জব্বার বলেন, ছাত্রাবাসটি চালু করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার ব্যাপারে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. নজরুল ইসলাম বলেন, অত্র বিদ্যালয়ের ছাত্রাবাসটি চালুর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করা হয়েছে। আশা করছি, দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

The Post Viewed By: 34 People

সম্পর্কিত পোস্ট