চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ | ৩:০১ পূর্বাহ্ন

মো. দেলোয়ার হোসেন হ চন্দনাইশ

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’র আক্রমণের জের পোকায় সর্বনাশ শিমফুল

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে অসময়ে বৃষ্টি হওয়ায় চন্দনাইশের চাষীদের সর্বনাশ বয়ে এনেছে শিম ফুল। গত ৮ থেকে ১০ নভেম্বর টানা ৩ দিন বৃষ্টিপাতের কারণে শিম ক্ষেতের পাতা ও ফুলে পোকার আক্রমণ শুরু হয়। প্রথম চালানে যেসব শিম ক্ষেতে ফুল এসেছে তা পুরোটাই ঝরে পড়ছে শিমের ফুল। কৃষকেরা জানান, শিম ক্ষেতে বৃষ্টির পানি পড়লেই পোকা আক্রমণ করে এবং আশানুরূপ ফলন হয় না। চলতি মৌসুমে শঙ্খ তীরবর্তী এলাকায় চন্দনাইশ উপজেলায় ৩৭০ হেক্টর জমিতে শিম চাষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

উপজেলার দোহাজারী পৌরসভাসহ শঙ্খ তীরবর্তী এলাকা সরেজমিনে দেখা যায়, প্রতিটি শিম ক্ষেতে বেগুনী রঙের শিম ফুলে ছেয়ে গেছে। শিম চাষীরা ক্ষেতের পরিচর্যা করছেন, পোকা দমনের ঔষুধ ছিটাচ্ছেন। কারণ বৃষ্টির পানি শিম ক্ষেতে পড়ায় পোকার আক্রমণ শুরু হয়েছে। চলতি মৌসুমে শিম চাষীরা লোকসানের মুখে পড়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

পূর্ব দোহাজারী এলাকার শিম চাষী রহিম উদ্দিন জানান, শিম ক্ষেতে বৃষ্টির পানি লাগলে ‘ফল ছিদ্র পোকা’ আক্রমণ করে। তখন ক্ষেতে কোন ধরনের কীটনাশক প্রয়োগেও কাজ হয় না। এ কারণে পোকার আক্রমণ হলে সেখানে আশানুরূপ ফল পাওয়া যায় না। কৃষকেরা চলতি মৌসুমে অগ্রিম শীতকালীন সবজি চাষ শুরু করেছে। এর মধ্যে শিম অন্যতম। কৃষকেরা অন্য শীতকালীন সবজির পাশাপাশি শিম চাষ করেছেন লাভের আশায়। কিন্তু সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আক্রমণের সময় হালকা ও ভারি বর্ষণের কারণে শিম ক্ষেতে পোকার আক্রমণ শুরু হয়েছে। কৃষকেরা চিন্তায় পড়েছেন। কৃষক ফজল করিম বলেন, তিনি ৪০ শত জমিতে শিম চাষ করতে ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। ক্ষেতে ফুল এসেছে, ভাল ফলনও হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের সময় বৃষ্টি হওয়ায় পোকার আক্রমণ শুরু হয়েছে। এ কারণে চলতি মৌসুমে শিম চাষের খরচ পোষাতে পারবে কিনা তা নিয়ে চিন্তায় রয়েছে তিনি। যে মুহূর্তে প্রচুর পরিমাণে শীতকালীন সবজি বাজারে আসা শুরু করেছে, সেই মুহূর্তে বৃষ্টির কারণে কৃষকেরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন।

কালিয়াইশের হাছান বলেন, বাড়তি লাভের আসায় চলতি মৌসুমে শিম চাষের পাশাপাশি ফুলকপি ও বাধাকপির চাষ করেছেন।
ইতিমধ্যে বেশকিছু ফুলকপি ও বাধাকপি বিক্রি করেছেন। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আক্রমণের সময় বৃষ্টির কারণে ফুলকপি ও বাধাকপির তেমন ক্ষতি না হলেও শিম চাষে পোকার আক্রমণ দেখা দেয়ায় তিনি ক্ষতির শিকার হবেন বলে জানান। চন্দনাইশে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের সময় বৃষ্টিপাতের কারণে বোরো ধানের ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন শাক-সবজি চাষও ক্ষতিসাধন হয়েছে। এ ব্যাপারে চন্দনাইশ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা স্মৃতি রাণী সরকার বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে যে পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে তাতে সবজি ক্ষেতের তেমন ক্ষতি হবে না। বরং অনেক সবজি ক্ষেতের জন্য ভালই হয়েছে। শিম ক্ষেতে ‘ফল ছিদ্র পোকা’র আক্রমণও তেমন হবে না বলে জানান। কৃষকদের পোকা দমনে সেক্স পেরোমেন পদ্ধতি ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন।

The Post Viewed By: 53 People

সম্পর্কিত পোস্ট