চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১০ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:১০ পূর্বাহ্ণ

নয়ন চৌধুরী

ইতিহাস-ঐতিহ্যের সাক্ষী সত্য সাহার জমিদার বাড়ি

মন্দিরের গ্রাম হিসেবে খ্যাত নন্দীরহাট। চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি মহাসড়কে হাটহাজারী থানার অন্তর্গত ঐতিহাসিক ও পুরাকীর্তির প্রাচীন নন্দীরহাট গ্রাম। ব্রিটিশ আমলে এই গ্রামে বেশ কয়েকজন জমিদার বাস করতেন। জমিদারদের রাজবাড়ির পাশাপাশি ছিল তাদের তৈরি নানা মন্দির। সেই কারণেই এই গ্রামকে মন্দিরের গ্রাম হিসেবে অবিহিত করা হয়। আর এই নন্দীরহাট গ্রামের একটি ঐতিহাসিক জমিদার বাড়ি লক্ষ্মীচরণ সাহার জমিদার বাড়ি। এই জমিদার বাড়িটি সত্য সাহার জমিদার বাড়ি হিসেবেও পরিচিত।

প্রায় ৫ একর জায়গার ওপর দুই গম্বুজবিশিষ্ট এই জমিদার বাড়ি নির্মিত হয় ১৮৯০ সালে। জমিদার শ্রী লক্ষ্মীচরণ সাহা বাড়িটি নির্মাণ করেন। জমিদার লক্ষ্মীচরণ সাহা, মাদল সাহা ও নিশিকান্ত সাহা এই জমিদারের সূচনা করেন। পরবর্তীতে জমিদার প্রথা বিলুপ্ত হবার আগ পর্যন্ত জমিদারি দেখাশুনা করেন লক্ষ্মীচরণ সাহার বড় ছেলে প্রসন্ন সাহা। ১৯৩৪ সালের ২৫ ডিসেম্বর সত্য সাহার জন্ম হয় এই জমিদার বংশে। একুশে পদকপ্রাপ্ত খ্যাতিমান সঙ্গীত পরিচালক ও সুরকার সত্য সাহার নামেই এখন জমিদার বাড়িটি পরিচিত। ঐতিহাসিক এই বাড়িটিতে একসময় সিনেমার শুটিংও হয়েছে। প্রাচীন ঐতিহ্য সম্বলিত এই বাড়িটি ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আজও টিকে আছে। বাড়িটির চারদিকে রয়েছে ফসলি জমি, গাছগাছালি এবং তিনটি পুকুর। এছাড়া আছে একটি দোতলা কাচারি ঘর, একটি বিগ্রহ মন্দির ও দুইটি বাস ভবন। দৃষ্টিনন্দন এই জমিদার বাড়িটি কালের প্রবাহে জরাজীর্ণ হলেও এর ভাবগম্ভীর ঐতিহ্য আর সৌন্দর্য এখনো বিদ্যমান। জমিদার ভবনের দেয়াল ও কার্নিশগুলো নানা কারুকাজে দৃষ্টিনন্দন করে গড়ে তোলা হয়েছে। কাঠের ছাদের বাড়িটির দুই পাশে আছে দুটি গম্বুজ।

যেভাবে যাবেন: চট্টগ্রামের দামপাড়া বা জিইসি মোড় থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়গামী ৩ নাম্বার বাসে করে নন্দীরহাট নামতে হবে। নন্দীরহাটের পশ্চিম পাশে দিয়েই জমিদারবাড়ি অভিমুখ রাস্তা। হেঁটে যেতে সময় লাগবে ১০ মিনিট। যেতে পারেন সিএনজিচালিত ট্যাক্সিতেও। যাওয়ার পর হাতের ডান পাশেই দেখবেন এই জমিদারবাড়ি। এখানে নন্দীরহাট গ্রামে বেশ কয়েকটি পুরাকীর্তি স্থাপনা রয়েছে। দেখে যেতে পারেন সেসবও। শ্রী শ্রী লোকনাথ মন্দির (চট্টগ্রাম কেন্দ্র) রামঠাকুরের মন্দির, রাধাকৃষ্ণ জিউর মন্দিরসহ আরো অনেক মন্দির আছে আপনি চাইলে ঘুরে আসতে পারেন।

The Post Viewed By: 12 People

সম্পর্কিত পোস্ট