চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১

২৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ৪:৫৭ অপরাহ্ণ

জোছনা হক

আত্মসম্মান কোনো ঠুনকো জিনিস নয়

আত্মসম্মান এমন একটা জিনিস যা অন্যের কাছে আপনার ব্যক্তিত্ব তুলে ধরবে। তাই প্রতিটি মানুষের মাঝে আত্মসম্মানবোধ থাকা দরকার। তবে সহানুভূতি এক ধরনের ভিক্ষার মতো। কারো কাছ থেকে কোনো প্রকার সহানুভূতি আশা করবেন না। অন্যের কাছে ছোট হতে হয় এমন কোনো কাজ করবেন না। যা আপনাকে সারাজীবন অনুতপ্ত করবে। নিজের কষ্ট ভুলেও কারো কাছে প্রকাশ করতে যাবেন না। সবসময় নিজের কষ্টকে নিজের মাঝে রাখতে চেষ্টা করবেন। কারণ আপনি যাকে আপনার কষ্টের কথা বলছেন- দেখা গেল সে আপনার কথা শুনে যে কোনো সময় দুর্বলতার সুযোগ নিতে পারে। একটা বিষয় অন্যকে বুঝানোর সময় আপনাকে আপনার আত্মসম্মানকে উদাহরণ হিসেবে ব্যবহার করতে পারে। তাই সাবধান- নিজের আত্মসম্মানকে অন্যের কাছে উপহাস হতে দেবেন না।

সব জানতে হবে এমন কোনো কথা নেই। কোনো একটা কাজ বা কোনো একটা কিছু করতে পারছেন না এতে লজ্জার কোনো কারণ নেই, এটি আপনি সরলমনে অনায়েসে স্বীকার করে নিবেন। বলুন পারি না কিন্তু শিখে নিব। এটা আপনার আত্মসম্মান বাড়িয়ে দিবে।

অনেকসময় আমরা মন রক্ষা করার জন্য নিজের মনের বিরুদ্ধে অনেক কাজ করে থাকি।
‌না’ বলতে শিখুন। না কথাটা সবাই বলতে পারে না। না বললে আপনার জীবনে উন্নতি হবে। কেউ আপনাকে ছেড়ে চলে যেতে চাইলে তাকে যেতে দিন। জোর করে কাউকে বেঁধে রাখার মানে হয় না। আর আপনি তাকে পাওয়ার জন্য সে যা যা বলছে তাই করছেন। এটা সম্পূর্ণ ভুল, এটা কখনোই করবেন না। এতে আপনার বড় ভুল হয়ে যেতে পারে।

আপনজনদের সঙ্গে এমন কোনো কাজ করবেন না যেসব কাজ করলে তাদের হারিয়ে ফেলতে বাধ্য করে। যতটুকু সম্ভব সম্পর্ক বজায় রাখতে চেষ্টা করবেন।

আত্মসম্মান কোনো ঠুনকো জিনিস না, এটা অনেক দামি জিনিস। ভেঙ্গে যাবেন তবুও মচকাবেন না।

দুই টাকা আর কোটি টাকার জন্য ছোটখাটো বিষয় নিয়ে নিজের আত্মঅহমিকা বিসর্জন দেবেন না। কোটি টাকা দিয়ে প্রাসাদ কেনা যায়, আত্মসম্মান নয়।

যে আপনাকে পছন্দ করে না তার থেকে দূরে থাকুন। সে যদি আপনাকে একবার ঘৃণা করে তার আশেপাশেও থাকবেন না।

আত্মসম্মান নষ্ট হবার যথেষ্ট কারণ হচ্ছে কেউ মূল্য না দিলে আপনি তার সঙ্গে পুনরায় মিশতে চেষ্টা করেন। এতে সে ভেবে নেয় আপনি নগণ্য বা তার থেকে কিছু আশা করছেন। নয়তোবা সে আপনাকে সস্তা ভাবতে শুরু করবে।

কোনো কাজকে ছোট করে দেখবেন না। সবসময় নিজের কাজকে সম্মান করবেন। কারণ নিজের কাজকে নিজেই যদি ছোট করে দেখেন তাহলে কেউ আপনাকে সম্মান দিবে না।

কিছু মানুষের সঙ্গে কথা বললে বা কিছু জানতে চাইলে মুখের দিকে থাকিয়ে থাকতে হয়। আপনি দেখছেন সে জবাব দিচ্ছে না বরং বিরক্তবোধ করছে, তখন তাকে আর প্রশ্ন করবেন না। এতে আপনার আত্মসম্মান কমে যাবে।

পূর্বকোণ/এএইচ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 357 People

সম্পর্কিত পোস্ট