চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৯ জুলাই, ২০১৯ | ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

সাইমুম চৌধুরী

সুখী জীবনের প্রত্যাশা

এক টি জাতীয় দৈনি কের ১৭ জুন/ ২০১৯ সংখ্যা য় প্রকাশ ৯ জুন/১৯ চট্টগ্রামের বাসিন্দা সৈয়দ ইফতেখার আলম নামের তথ্য প্রযুক্তি’র এক শিক্ষার্থী অপহরণের (গুম) শিকার হয়েছেন।
১০ জুন/১৯ চট্টগ্রাম পাঁচলাইশ থানায় শিক্ষার্থীর বাবা সৈয়দ মো. ইদ্রিস আলম “নিখোঁজ ডায়েরি” করেন। পত্রিকান্তে জানা যায়, নিখোঁজ ইফতেখার ঢাকার একটি বেরসরকারি বিশ^বিদ্যালয়ে দশম সেমিস্টার পর্যন্ত পড়ার পর একটা চাকরির চেষ্টা করছিলেন। তাঁকে জীবন বৃত্তান্ত নিয়ে চট্টগ্রামের প্রবর্তক এলাকায় যেতে বলা হয়।
সেই মোতাবেক সৈয়দ ইফতেখার উল্লেখিত স্থানে গেলে তাঁকে একটি ল্যান্ড ক্রুজার গাড়িতে তোলা হয়। পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া পত্রিকার প্রতিবেদককে বলেন, তাঁর ধারণা ওই গাড়িতে করে ইফতেখারকে অজ্ঞাত জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য অপহৃত ইফতেখার সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ এর ভাগ্নে।
তিনি ভাগ্নের অপহরণের খবর পেয়ে তাঁর ফেসবুক পোস্টে ১৫ জুন (শনিবার) লিখেছেন ‘তাঁর মামাতো বোনের ছেলে (ভাগ্নে) সৈয়দ ইফতেখার আলমকে (সৌরভ) ৯ জুন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কাছাকাছি জায়গা থেকে অপহরণ করা হয়েছে। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের তিনি অনুরোধ জানান ছেলেটিকে ফিরিয়ে দিতে, নইলে তাদের পরিচয় জনসম্মুখে প্রকাশ করা হবে।”
তিনি আরো লিখেন “ঘটনার আড়ালে কারা আছেন তা আমরা জানি।”
অন্যদিকে অপহৃত সৈয়দ ইফতেখার এর বাবা সৈয়দ ইদ্রিস আলম ১৬ জুন পত্রিকার প্রতিনিধিকে বলেন “তাঁর ছেলেকে ‘গুম’ করা হয়েছে। একটি মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ থাকার কারণে মেয়েটির বাবা এই কান্ড ঘটান।” তিনি আরো বলেন তাঁর ছেলেকে ওই মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে নানাভাবে প্রাণনাশের হুমকি দেন মেয়ের বাবা।
তবে ছেলেটির বাবা সৈয়দ ইদ্রিস আলম জানান তাঁর ছেলে (ইফতেখার) ওই মেয়ের সঙ্গে অনেক আগেই সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। পুলিশ সূত্রে পত্রিকায় প্রকাশ ইফতেখার কোথায় আছে তা এখনো (১৭ জুন) নিশ্চিত হওয়া যায় নি। সিসিটিভি ক্যামেরায় গাড়িটির নম্বর স্পষ্ট নয়।
নগরের আশপাশের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা করছে পুলিশ।
অন্যদিকে পুলিশ সূত্রে জানা যায় মেয়ের বাবাকে ইফতেখারের বাবা তাঁর ছেলে নিখোঁজের জন্য মেয়ের বাবাকে দায়ী করছেন। অন্যদিকে মেয়ের বাবা মুঠোফোনে পত্রিকার প্রতিবেদক জানান “তাঁর মেয়ের সঙ্গে ফেসবুক বা মেসেঞ্জারে ছেলেটির ম্যাসেজ আদান-প্রদান হয়েছে মাত্র। তদন্ত ছাড়া তাঁদের দায়ী করা উচিত নয়। যাক অবশেষে অপহরণের ১১ দিন পর ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার জামিল অটোরাইস মিলের ফোরম্যান ভোরে মিলের সীমানা প্রাচীরের বাইরে বাঁধা অবস্থায় নিখোঁজ ইফতেখারকে পায়। অবশেষে অপহৃত মায়ের ছেলে মায়ের বুকে ফিরে এলো এর চেয়ে বড় সন্তুষ্টি আর কিছুই হতে পারে না।
মহান বিধাতা আদম হাওয়া সৃষ্টির সাথে সাথে তাঁদের দু’জনের মধ্যে ভালবাসা নামক গুণটিও দিয়ে দিয়েছিলেন। তা না হলে জনমানবহীন এ পৃথিবীতে তাঁরা উভয়ে কিভাবে থাকতেন?
তাই বলতে হয় ভালবাসা নামক গুণটি আছে বলেই তো মানুষ শত দুঃখ কষ্টে সংসার জীবন পালন করছে। ভালবাসায় ধনী গরীব ধর্ম জাত গৌন। মুখ্য হোলো দুটো মনের মিল। এটিকেই প্রাধান্য দিলেই সংসার জীবন সুখের হয়।
আসুন অর্থ বিত্ত, ধনী গরীব প্রভেদ ভুলে সুখী সুন্দর জীবন গড়ি।

The Post Viewed By: 111 People

সম্পর্কিত পোস্ট