চট্টগ্রাম শনিবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২০

১৪ জানুয়ারী, ২০২০ | ৩:৩৫ অপরাহ্ন

অনলাইন ডেস্ক

ক্যাসিনোর মূলহোতা এনু-রুপন ৪ দিনের রিমাণ্ডে

ক্যাসিনো ব্যবসার মূলহোতা দুই সহোদর ও গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুপন ভূঁইয়াকে ৪ দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুর মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরী তাদের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন। এর আগে অর্থ পাচারের দুই মামলায় তাদের বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। 

গোপনে দেশ ত্যাগের চেষ্টায় থাকা এই দুই ভাইকে গতকাল কেরানীগঞ্জের একটি বাড়ি থেকে বেনামি পাসপোর্টসহ গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে নগদ ৪০ লাখ টাকা ও ১২টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। 

এর আগে সোমবার ক্যাসিনোর টাকায় সম্পদের পাহাড় গড়া রাজধানীর গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক এনু, তার ভাই একই কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক রুপন ভূঁইয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইড)। এ সময় তাদের কাছ থেকে নগদ ৪০ লাখ টাকা, ১২টি মোবাইল ফোন, ২২টি জমির দলিলপত্র এবং ১৯ কোটি টাকার ব্যাংকের কাগজপত্র উদ্ধার করে।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে এই দুই নেতার বাসায় অভিযান চালিয়ে ৫ কোটি ৫ লাখ টাকা ও প্রায় ৭০০ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করে র‌্যাব। এরপর থেকেই পলাতক ছিলেন তারা। 

তাদের দুই জনের ঢাকায় ২২টি বাড়ি ও একাধিক জমি রয়েছে। এছাড়াও সারাদেশে ব্যাংকের বিভিন্ন শাখায় তাদের ৯১টি একাউন্টে ১৯ কোটি টাকা জমা রয়েছে এবং ব্যক্তিগত পাঁচটি বিলাসবহুল গাড়ি আছে দুই ভাই এনাম ও রুপনের। 

এর পর ২৩ অক্টোবর তাদের বিরুদ্ধে গেণ্ডারিয়া থানায় দুটি আলাদা মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। একাধিক বার অভিযান চালিয়েও তাদের গ্রেপ্তার করা যায়নি। অবশেষে সোমবার ধরা পড়লেন আলোচিত এ দুই ভাই।

অভিযান ‍শুরুর পর প্রথমে তারা কক্সবাজার যান। মিয়ানমার অথবা মালয়েশিয়ায় যাওয়ার চেষ্টা করেন। না পেরে তারা কেরাণীগঞ্জে চলে আসেন। তাদের কর্মচারীর বাসায় তারা এতদিন অবস্থান করছিলেন। তাদের কাছে ৪৬ লাখ টাকা ছিল। এই টাকা দিয়ে তারা ভুয়া পাসপোর্ট করে ভারত হয়ে অন্য দেশে যেতে চেয়েছিলেন।

 

পূর্বকোণ/পিআর 

The Post Viewed By: 61 People

সম্পর্কিত পোস্ট