চট্টগ্রাম রবিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২০

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:২৮ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা অফিস

অভিজিতের বাবা অজয় রায়ও চলে গেলেন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞানের বরেণ্য অধ্যাপক অজয় রায় গতকাল সোমবার দুপুরে মারা গিয়েছেন। ৮৫ বছর বয়সী এই অধ্যাপক বেশ কিছুদিন ধরেই ঢাকার একটি হাসপাতালের আইসিইউ-তে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। ২০১৫ সালে ফেব্রুয়ারিতে জঙ্গি হামলায় ছেলে বিজ্ঞানমনষ্ক লেখক অভিজিৎ রায় নিহত হওয়ার পর কার্যত তিনি ভেঙ্গে পড়েছিলেন। বছরখানেক আগে স্ত্রীকেও হারিয়েছেন। এবার অভিজিৎ রায় হত্যার বিচার শেষ হওয়ার আগেই চিরবিদায় নিলেন দেশের বিশিষ্ট এ নাগরিক। প্রয়াত অজয় রায়ের শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তাঁর মরদেহ বারডেম হাসপাতালে দান করা হবে। অধ্যাপক রায়ের ছোট ছেলে অনুজিৎ রায় এদিন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। অনুজিৎ রায় বলেন, নিজের মৃতদেহ দান করে যাওয়ার ইচ্ছা ছিল বাবার (অধ্যাপক অজয় রায়)। মৃত্যুর আগে অনেকবার সে কথা আমাদের জানিয়েছেন। সেই অনুযায়ী আমরা বাবার দেহ বারডেম হাসপাতালে দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ নভেম্বর শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তার কয়েকদিন আগে গত ২৮ অক্টোবর ছেলে হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিতে আদালতে গিয়েছিলেন তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞানের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক অজয় রায় অস্ত্র হাতে মুক্তিযুদ্ধও করেছেন। পেশাগত জীবনে তিনি সবসময়ই বিজ্ঞানভিত্তিক মানবতাবাদী শিক্ষার পক্ষে কথা বলেছেন।

The Post Viewed By: 49 People

সম্পর্কিত পোস্ট