চট্টগ্রাম সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৬ নভেম্বর, ২০১৯ | ৩:১৩ পূর্বাহ্ন

পূর্বকোণ ডেক্স

অবশেষে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরলেন নির্যাতিত নারী সুমি

অবশেষে দেশে ফিরলেন সৌদি আরবে নির্যাতিত সেই গৃহকর্মী সৃমি আক্তার। শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টায় এয়ার এরাবিয়ার জি৯-৫১৭ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান সুমি। একই সঙ্গে সৌদি থেকে দেশে ফিরেছেন নির্যাতিত আরও ৯১ নারী গৃহকর্মী। সুমিকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম সুমিকে দেশে ফেরাতে উদ্যোগ নেন। এরই ধারাবাহিকতায় দেশে

ফেরেন সুমি আক্তার। সুমির স্বামী নূরুল ইসলাম বলেন, সুমি দেশে ফেরায় খুব আনন্দ লাগছে, তেমনি কষ্টও লাগছে। কারণ ভাগ্য বদলের আশায় সৌদি গিয়েছিল সুমি, এখন খালি হাতে ফিরছে। সবকিছুর পর সুমি দেশে ফেরায় সরকারকে ধন্যবাদ।

তবে দেশে ফেরার পর সংবাদমাধ্যমের অগোচরেই বিমানবন্দর ত্যাগ করেন সুমি। কিন্তু তার স্বামী নূরুল ইসলাম বিমানবন্দরে অপেক্ষা করতে থাকেন। পরে ব্র্যাকের কর্মীরা জানান, সুমি ফ্লাইট থেকে নেমে টার্মিনাল এক দিয়ে বাড়ি চলে গেছেন। কিন্তু তার স্বামী ও গণমাধ্যম কর্মীরা টার্মিনাল-২ এ সুমি ও অন্য নির্যাতিত নারীদের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন।

সুমি আক্তার পঞ্চগড় জেলার বোদা সদর থানার রফিকুল ইসলামের মেয়ে। দুই বছর আগে আশুলিয়ার চারাবাগের নূরুল ইসলামের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। সম্প্রতি ফেসবুকে কান্নাজড়িত কন্ঠে তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া পাশবিক নির্যাতনের কথা বলে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান সুমি। পরবর্তীতে ভিডিওটি ভাইরাল হয়।
ভিডিওটিতে সুমি কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমি আমার সন্তান ও পরিবারের কাছে ফিরতে চাই। আমাকে আমার পরিবারের কাছে নিয়ে যান। এখানে আমার ওপর অনেক নির্যাতন হয়। আর কিছুদিন থাকলে হয়তো মরেই যাবো। তাই প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে অনুরোধ আপনারা আমাকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যান।

ভিডিওতে সুমি অভিযোগ করেন, ‘ভালো কাজের’ কথা বলে এনে এখন তার ওপর নির্যাতন করা হচ্ছে। এরপর জেদ্দা কনস্যুলেটের হস্তক্ষেপে সুমিকে নিয়োগকর্তার বাড়ি থেকে নিয়ে আসে পুলিশ, তাকে রাখা হয় সেইফ হোমে। কিন্তু পাওনা ২২ হাজার রিয়াল পাওয়ার আগে তাকে ‘ফাইনাল এক্সিট’ দেবেন না বলে তখন জানিয়েছিলেন তার কফিল।

সৌদি আরবের নাজরান শহরের শ্রম আদালতে বিষয়টি নিষ্পত্তির পর সুমির দেশে আসার পথ তৈরি হয়। আদালত সুমির কফিলের (নিয়োগকর্তা) দাবি করা ২২ হাজার সৌদি রিয়াল পরিশোধের আবেদন নামঞ্জুর করে এবং সুমিকে দেশে ফেরার অনুমতি দেয়। অবর্ণনীয় দুর্ভোগের পর শুক্রবার তার দেশে ফেরা হল।

The Post Viewed By: 47 People

সম্পর্কিত পোস্ট