চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

১১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:০৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক হ ঢাকা অফিস

হরতালের আহ্বানের ভাবনা বিএনপিতে

ভারতের সাথে বাংলাদেশ সরকারের স্বার্থ বিরোধী চুক্তি বাতিল এবং চুক্তির বিরোধিতার কারণে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদসহ জনসম্পৃক্ত ইস্যুতে হরতালের মত কর্মসূচি দেওয়ার কথা ভাবছে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তবে কবে নাগাদ হরতাল আহবান করা হবে সেই সিদ্ধান্ত এখনও পাকা করা হয়নি। এ সম্পর্কে বিএনপি এবং জোট নেতাদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা চলছে বলে জানা গেছে। বিগত ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে লাগাতার হরতাল-অবরোধসহ আন্দোলনের নানা কর্মসূচি দিয়েছিলো বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের আমলে (২০০৯-২০১৩) প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ওই সময় ৩৫ দিন হরতাল পালন করে। আর শেষের দিকে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন ও ৫ জানুয়ারির (২০১৪) নির্বাচন বাতিলের দাবিতে টানা প্রায় দুই মাস (৬০ দিন) জঙ্গি অবরোধ কর্মসূচি পালন করে দলটি।

হরতাল আহবান করা হবে কিনা জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক শীর্ষ নেতা জানান, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের স্বার্থবিরোধী চুক্তি বাতিল এবং চুক্তির বিরোধিতার কারণে আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদসহ জনসম্পৃক্ত ইস্যুতে আমরা বিএনপিকে হরতাল আহবানের প্রস্তাব দিয়েছি। তারা বিষয়টি পজিটিভভাবে নিয়েছে। কিন্তু বিএনপি কবে নাগাদ হরতাল দেবে তা বলতে পারবো না। তবে সময় শেষ হওয়ার পর দিলে কোন লাভ হবে না। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আমরা যদি চিন্তা-ভাবনা করি তাহলে সাংবাদিক হিসেবে আপনারাই আগে জানবেন। আর এখন আমরা যে কর্মসূচি দিয়েছি, সেটাই সামনের কর্মসূচি। এটা আগে পালন করি। এরপর পরিবেশ ও পরিস্থিতির উপর নির্ভর করবে কি করতে হবে এবং কি দেবো। আর হরতালের বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি এবং আলোচনাও হয় নাই।

এ দিকে দেশের স্বার্থ বিরোধী চুক্তি বাতিল ও চুক্তির বিরোধিতার কারণে আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন। খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, দেশের স্বার্থ বিরোধী চুক্তি বাতিল ও এই চুক্তির বিরোধিতার কারণে আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে আমরা আগামী শনিবার ঢাকাসহ দেশের সকল মহানগর সদরে জনসমাবেশ এবং আগামী রোববার দেশের সকল জেলা সদরে জনসমাবেশ অনুষ্ঠানের কর্মসূচি ঘোষণা করছি।

শেয়ার করুন
  • 2
    Shares
The Post Viewed By: 200 People

সম্পর্কিত পোস্ট