চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

১০ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:০৩ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

‘উপজেলা পর্যায়ে সুপেয় পানি পৌঁছে দিতে কাজ করছি’

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘পানির চাহিদা মেটাতে মাটির ওপরে পানির বিভিন্ন উৎস ও বৃষ্টির পানি ধরে রেখে ব্যবহারের চেষ্টা বাড়াচ্ছি। ভূগর্ভস্থ পানির অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে বিভিন্ন সমস্যা হয়। তাছাড়া আমরা সব বিভাগীয় শহর, জেলা-উপজেলা পর্যন্ত সুপেয় পানির ব্যবস্থা করছি। একেবারে ইউনিয়ন পর্যন্ত এটা করা হবে।’

পদ্মা (যশলদিয়া) পানি শোধনাগার (ফেজ-১) এবং সাভার উপজেলার তেতুলঝরা-ভাকুর্তা এলাকায় ওয়েলফিল্ড নির্মাণ (১ম পর্ব) প্রকল্প ও ঢাকা এনভায়রনমেন্টালি সাসটেইনেবল ওয়াটার সাপ্লাই প্রকল্পের অধীন রূপগঞ্জের গন্ধর্বপুরে পানি শোধনাগার নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনসহ তিনটি প্রকল্প উদ্বোধনের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেল থেকে এসব উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

ঢাকা ওয়াসার নতুন দু’টি পানি শোধনাগার প্ল্যান্ট উদ্বোধনের ফলে দিনে আরও ৬০ কোটি লিটার বিশুদ্ধ পানি পেলো ঢাকাবাসী।

লৌহজং উপজেলার পদ্মা যশলদিয়া পানি শোধন প্ল্যান্টের মাধ্যমে প্রতিদিন ৪৫ কোটি লিটার শোধিত পদ্মা নদীর পানি আসবে ঢাকায়। পদ্মার পানি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টে নিয়ে সেখান থেকে পাইপের মাধ্যমে ঢাকায় পাঠানো হবে। ৩ হাজার ৬৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্প স্থাপন করা হয়েছে।

ঢাকার ক্রমবর্ধমান পানি চাহিদা মেটাতে ২০১৫ সালের অক্টোবরে এ প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একটি চায়নিজ কোম্পানি এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করে।

রাজধানী মিরপুর এলাকায় ভূগর্ভস্থ পানির ওপর ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে সাভারের তেতুলঝরা-ভাকুর্তা এলাকায় ওয়েলফিল্ড নির্মাণ (১ম পর্ব) প্রকল্প নির্মাণ করা হয়। এ প্রকল্প থেকে প্রতিদিন ১৫ কোটি লিটার পানি পাবে ঢাকাবাসী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় সরকার সচিব হেলাল উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং, দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত হু কাং-ইল, এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ এবং ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খান।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 226 People

সম্পর্কিত পোস্ট