চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ অক্টোবর, ২০১৯ | ৮:৫৬ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

সিএনজি থেকে তরুণীকে অপহরণ, মুখে স্কচটেপ বেঁধে রাতভর গণধর্ষণ

কাজ শেষে রাতে বাড়ি ফিরতে স্থানীয় একটি সিএনজিতে ওঠেন এক তরুণী। পেছনের সিটেই আগে থেকেই বসা ছিল এক ধর্ষক। তরুণী হয়ত তখন কল্পানও করতে পারেনি সারারাত গণধর্ষণের শিকার হতে হবে তাকে। সিএনজিতে পাশে থাকা ওই লম্পট তরুণীর মুখে জোরপূর্বক স্কচটেপ বেঁধে দেয়। পরে নির্জন এক বাড়িতে নিয়ে সাতজন মিলে সারারাত ধর্ষণ করে।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিবাগত রাতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার জামপুর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণবাওগা গ্রামে।  এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে এরই মধ্যে পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পরে ওই গার্মেন্টস কর্মীকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই আসামি পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তালতলা ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আহসানউল্লাহ। মঙ্গলবার দুপুরে সাত জনকে আসামি করে ওই গার্মেন্ট কর্মী বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

তালতলা ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আহসানউল্লাহ জানান, ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দু’জন পলাতক রয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ভিকটিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, গণধর্ষণের ঘটনার মামলা হয়েছে।

পূর্বকোণ/এএএস

The Post Viewed By: 4161 People

সম্পর্কিত পোস্ট