চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৭:০০ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

জি কে শামীমকে নেয়া হচ্ছে আদালতে

চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে আটক জি কে শামীমকে আদালতে নেয়া হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে গুলশান থানায় অস্ত্র, মাদক ও মানি লন্ডারিংয়ে তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেল পৌনে ৬টার দিকে গুলশান থানা পুলিশ তাকে নিয়ে আদালতের পথে রওনা হয়।

গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) আব্দুল আহাদ জানান, জি কে শামীমের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও মানি লন্ডারিংয়ে তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে গুলশান থানায়। তাকে আদালতে হাজির করে মাদক ও অস্ত্র মামলায় সাত দিন করে ১৪ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

এর আগে র‌্যাব জি কে শামীমকে তার সাত দেহরক্ষীসহ রাজধানীর গুলশান থানায় হস্তান্তর করে। অস্ত্র ও মানি লন্ডারিং মামলায় শামীমের সঙ্গে তার সাত দেহরক্ষীকে আসামি করা হলেও মাদক মামলায় শুধুমাত্র শামীমকে আসামি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর নিকেতনে ৫ নম্বর সড়কের ১৪৪ নম্বর ভবনে শামীমের কার্যালয় ঘিরে অভিযান চালায় র‌্যাব। কার্যালয়ের ভেতর থেকে বিদেশি মুদ্রা, মদ, একটি আগ্নেয়াস্ত্র, মাদক, নগদ অর্থ, ২০০ কোটি টাকার এফডিআর চেক উদ্ধার করা হয়। এ সময় আরো সাতজনকে আটক করা হয়।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম জানান, শামীমের অস্ত্রের লাইসেন্স থাকলেও তা অবৈধভাবে ব্যবহারের অভিযোগ ছিল। তিনি বলেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেই অভিযান চালানো হয়েছে। এখানে তার মায়ের ও তার নামে বিপুল পরিমাণ এফডিআর পাওয়া গেছে।

র‌্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, সুনির্দিষ্ট ও টেন্ডারবাজির সে অভিযোগের ভিত্তিতে প্রথমে আমরা তার (জি কে শামীম) বাসা ঘেরাও করি, সেখান থেকে তার সাতজন দেহরক্ষী, অস্ত্র, শর্টগান ও গুলি উদ্ধার করা হয়। এরপর তাকে সঙ্গে নিয়ে তল্লাশি চালানো হয় তার অফিসে।

পূর্বকোণ/রাশেদ

The Post Viewed By: 240 People

সম্পর্কিত পোস্ট