চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:৩৪ পিএম

অনলাইন ডেস্ক

বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে তিস্তার পানি

টানা বৃষ্টি আর উজানের পাহাড়ি ঢলে বিপদসীমার (৫২.৬০ সেন্টিমিটার) ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে তিস্তা নদীর পানি।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টায় বিপদসীমার ৫২ দশমিক ৮৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হলেও সকাল ৯টায় তা কমে বিপদসীমার ১৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক নূরুল ইসলাম তিস্তায় পানি বৃদ্ধির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘তিস্তা অববাহিকায় পানি বৃদ্ধির কারণে নিম্নাঞ্চলের ঘরবাড়ি, ক্ষেতের ফসল ও রোপা আমন ধান তলিয়ে গেছে।’

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউনিয়নের ঝাড়শিঙ্গেশ্বর, টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের দোলাপাড়া, চড়খড়িবাড়ী, খালিশা চাপানি ইউনিয়নের বানপাড়া ছোটখাতা, ঝুনাগাছ ও চাপানি ইউনিয়নের সোনাখুলী ফরেস্টের চরের ঘরবাড়িতে বন্যার পানি ঢুকেছে।

পূর্ব ছাতনাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ জানান, ঝাড়শিঙ্গেশ্বর গ্রামের পাঁচ শতাধিক পরিবারের উঠানে বন্যার পানি ঢুকেছে।

এদিকে, টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মইনুল হক জানান, ছোটখাতা ও বানপাড়া গ্রামের মানুষজন তিস্তার ডান তীরে সপরিবারে আশ্রয় নিয়েছেন। এছাড়া দোলাপাড়া, তিস্তাবাজার চড়খড়িবাড়ী, পূর্বখড়িবাড়ী এলাকায় হাঁটুসমান পানি হয়েছে। ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, উজানের ভারী বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক উপসহকারী প্রকৌশলী আমিনুর রশীদ জানান, তিস্তার পানি হঠাৎ বৃদ্ধি পেয়েছে। বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টায় তিস্তার পানি বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে উজানের ঢল ও বন্যার পানি সামাল দিতে ব্যারাজের ৪৪টি স্লুইস গেট খুলে রাখা হয়েছে।

পূর্বকোণ/পলাশ

The Post Viewed By: 93 People

সম্পর্কিত পোস্ট