চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৫ আগস্ট, ২০১৯ | ২:১৮ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক হ ঢাকা অফিস

জানাজা সম্পন্ন, আজ দাফন

অধ্যাপক মোজাফফরকে ফুলেল শ্রদ্ধায় শেষ বিদায়

মুক্তিযুদ্ধকালীন বাংলাদেশ সরকারের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) সভাপতি ও বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের প্রথম ও দ্বিতীয় নামাজে জানাজা গতকাল শনিবার ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ রবিবার প্রয়াতের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার দেবীদ্বারের এলাহাবাদে দাফন করা হবে বরেণ্য এই রাজনীতিবিদকে। গতকাল জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় অনুষ্ঠিত বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদের প্রথম জানাজার পর তার কফিনে ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় সম্মান (গার্ড অব অনার) জানানো হয় এবং এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। প্রথমে রাষ্ট্রপতির পক্ষে রাষ্ট্রপতির সহকারী সামরিক সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ এর কফিনে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কফিনে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন

চৌধুরী প্রবীণ এই রাজনীতিবিদের কফিনে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে নিয়ে মরহুমের কফিনে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। জানাজায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান, নৌ পরিবহণ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ইনামুল হক শামীম, হুইপ আতিকুর রহমান আতিক, আইন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন খসরু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আ হ ম রুহুল হক, সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আ স ম ফিরোজসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা শরিক হন। এ সময় মরহুমের সংক্ষিপ্ত জীবনবৃত্তান্ত পাঠ করেন ন্যাপ সাধারণ সম্পাদক ইসমাঈল হোসেন। পরে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া ও মোনাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী শরিক হন।

এরপরে প্রয়াত মোজাফফর আহমদের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় ধানমন্ডিতে তাঁর স্মৃতি বিজরিত ন্যাপের কেন্দ্রীয় দপ্তরে। সেখান থেকে বেলা ১২টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে তার কফিন নেওয়া হয়; সেখানে রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানোর পর রাজনৈতিক সহকর্মী, অনুসারীরা ফুলেল শ্রদ্ধায় এই রাজনীতিককে শেষ বিদায় জানান। শহীদ মিনারে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, গণসংহতি আন্দোলন, কেন্দ্রীয় খেলাঘর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাম গণতান্ত্রিক জোট, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, ছাত্র ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র (টিইউসি), জাতীয় জাদুঘর, বাংলাদেশ কবিতা পরিষদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তানসহ বিভিন্ন সংগঠনের সদস্য এবং সাধারণ মানুষ অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

পরে বাদ আছর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে মোজাফফরের দ্বিতীয় জানাজার পর প্রয়াতের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় কুমিল্লায়। আজ রবিবার সকাল ১০টায় তাকে কুমিল্লার টাউন হল ময়দানে ও পরে দেবিদ্বার উপজেলার এলাহাবাদ গ্রামে তৃতীয় ও চতুর্থদফা জানাজার পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

গত শুক্রবার রাত পৌনে ৮টার দিকে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৯৮ বছর বয়সী এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন।

The Post Viewed By: 92 People

সম্পর্কিত পোস্ট