চট্টগ্রাম রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩

২৬ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ

কামাল পারভেজ অভি, সৌদিআরব

সৌদিতে নির্যাতনের শিকার বাংলাদেশি রোজিনা আক্তার

সৌদিআরবের দাম্মামে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি নারী রোজিনা আক্তার (২৭)। তিনি সিলেট হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের উছমানপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার পিতার নাম সুন্দর আলী।

 

 

জানা যায়, গত ২১ জানুয়ারি তার পরিবারের সঙ্গে এক ভিডিও কলে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তার ওপর বর্বরোচিত নির্যাতনের বর্ণনা দেন। ভিডিওকলে রোজিনা আক্তার তার ওপর নির্যাতনের চিহ্ন দেখান। তার হাত-পায়ে গরম পানি ঢেলে দেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান। রোজিনার বাবা সুন্দর আলী মঙ্গলবার মেয়েকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও হবিগঞ্জ কোর্টে দালাল দুলাল মিয়াসহ রিক্রুটিং এজেন্সির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে আদালত মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

 

 

সুন্দর আলী জানান, গত ২১ ডিসেম্বর দুলাল মিয়া তার মেয়েকে ঢাকার মডেল এভিয়েশন সার্ভিসের মাধ্যমে সৌদি আরবের দাম্মাম শহরে পাঠান। বেশি বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে সৌদি আরবের একটি বাসায় কাজ করছিলেন রোজিনা। কিন্তু বাসার মালিক প্রতিদিন নির্মম নির্যাতন চালাচ্ছেন। তারা চিকিৎসা না করায় দিন দিন শারীরিক ও মানসিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ছেন তাঁর মেয়ে।

 

 

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন মেয়ের সঙ্গে তাদের যোগাযোগ বন্ধ ছিল। তাকে স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে দেওয়া হয়নি। সর্বশেষ ২১ জানুয়ারি মেয়ের সঙ্গে ভিডিওকলে কথা হয় তাদের। এ সময় মেয়ে তার ওপর নির্যাতনের চিহ্ন দেখায়। পরে এ ঘটনায় তিনি আদালতে মামলা করেন।

 

 

রোজিনাকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনতে সৌদিআরবের রিয়াদস্হ বাংলাদেশ দূতাবাস, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়সহ বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন তার পিতা সুন্দর আলী।

পূর্বকোণ/আরএ

 

 

 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট