চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

৭ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১২:৫৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেনীতে ব্যবসায়ীকে খুন করে ২৮ লাখ টাকার স্বর্ণ লুট, গ্রেপ্তার ২

ফেনীর সোনাগাজী এলাকায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী অর্জুন চন্দ্র ভাদুড়ি খুনের মামলায় দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানার দক্ষিণ ভেচকি এলাকার মো. ইউসুফের ছেলে মো. রাকিব (২০) ও মৃত আব্দুল কুদ্দুস মালের ছেলে মো. আয়নাল মাল (৩২)।

 

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) গভীর রাত সাড়ে ৩টায় পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানাধীন চরদুয়ানী বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার।

 

তিনি বলেন, গত বছরের ৩০ অক্টোবর দুপুরে চারজন অজ্ঞাতনামা ডাকাত তার দোকানে ঢুকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাকে আহত করে দোকানের লকার ভেঙে ৪০ ভরি স্বর্ণ লুট করে নিয়ে যায়। লুট করা স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ২৮ লাখ টাকা। আহত অর্জুনের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে ডাকাতরা ককটেল বিষ্ফোরণ করে পালিয়ে যায়। পরে আহতাবস্থায় অর্জুন চন্দ্র ভাদুড়িকে চট্টগ্রামের ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

 

তিনি আরও বলেন, সোনাগাজী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে মো. জাফর হাওলাদার নামে এক ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তার কাছ থেকে ডাকাতির সময় ব্যবহার করা কালো রঙের মোটরবাইক উদ্ধার করা হয়। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে একপর্যায়ে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অন্যান্য ডাকাতদের ধরতে পুলিশ র‌্যাবের সহয়তা চাইলে র‌্যাব অভিযান শুরু করে। গতকাল শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দল পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানাধীন দল পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানাধীন এলাকা থেকে রাকিব ও আয়নাল মাল নামে আরও দুই ডাকতকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার রাকিবের কাছ থেকে ডাকাতির কাছে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেলও উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার আসামিরা ডাকাতি ও খুনের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। গ্রেপ্তারদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট