চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

১৪ ডিসেম্বর, ২০২২ | ২:০৩ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

‘পলাতক আসামিদের রায় কার্যকর করতে সরকারের সদিচ্ছার ঘাটতি নেই’

পলাতক থাকায় নয় বছরেও কার্যকর করা যায় নি বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ডে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত একাধিক আসামির রায়। তবে তাদের ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করতে সরকারের সদিচ্ছা ও আন্তরিকতার ঘাটতি নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তি আবারও সক্রিয় হচ্ছে।

বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে রাজধানীর রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে জাতির সূর্যসন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, আসামি যারা দেশের বাইরে আছেন, তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার কার্যক্রম চলছে। সরকারের পক্ষ থেকে কোনো প্রকার সদিচ্ছা এবং আন্তরিকতার ঘাটতি নেই। বিদেশে অনেক আইনি প্রতিবন্ধকতা আছে। তারপরও আমাদের চেষ্টার কমতি নেই। আমরা অচিরেই তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। কারও কারও ব্যাপারে অগ্রগতিও হয়েছে। আশা করি, এই প্রক্রিয়া আমরা দ্রুত সম্পন্ন করতে পারব।

 

তিনি বলেন, পাকিস্তানি বাহিনী, তাদের দোসররা একাত্তরে পরাজিত হলেও সেই পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে আবারও সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এই বাংলার সাম্প্রদায়িক মানবতাকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এবং স্বাধীনতার আদর্শে এই অপশক্তিকে রুখে দেওয়ায়ই আজকের দিনে আমাদের অঙ্গীকার।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, ১০ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বুদ্ধিজীবীদের হত্যার নীলনকশা প্রণয়ন করে। এদিন তারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের নিয়ে গিয়ে হত্যা করা শুরু করে। সর্বশেষ ১৪ ডিসেম্বর সব থেকে বড় ঘটনাটি ঘটে। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এই দিনেই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের গুম করে হত্যা করেছিল। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

পূর্বকোণ/আর/এএইচ

 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট