চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

৫ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১২:৪৫ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

অসম্ভবকে সম্ভব করাই বাঙালির চরিত্র : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমার ও আমার পরিবারের সকলের বিরুদ্ধে পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক অপবাদ দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু প্রমাণিত হয়েছে এখানে কোনো দুর্নীতি হয়নি। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম নিজের অর্থে পদ্মা সেতু করব। তখন অনেকে বলেছে এটা কখনও সম্ভব না। অনেক দেশের সরকারপ্রধানের সঙ্গে যখন আলোচনা করেছি তারা বলেছে, এটা সম্ভব না। অসম্ভবকে সম্ভব করা এটাই বাঙালির চরিত্র। এটা আমরা করতে পারব, আমরা করেছি।

 

 

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স- ২০২২ ও আর্মড ফোর্সেস ওয়ার কোর্স -২০২২ এর গ্রাজুয়েশন সেরেমনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

শেখ হাসিনা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ করা নিয়ে নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা দিয়েছিলাম। তখনও অনেকে মুচকি হেসেছিল। আজকে ডিজিটাল বাংলাদেশ সারা বিশ্বের কাছে একটা দৃষ্টান্ত। আজ গ্রামে বসে ছেলে-মেয়েরা ফ্রিল্যান্সিং করে ডলার আয় করে। এই সুযোগটা আমরা করে দিয়েছি।

 

সরকারপ্রধান বলেন, এটা আমাদের দেশ, আমাদের সম্পদ আমাদের রক্ষা করে চলতে হবে। আমার কারো কাছে হাত পেতে চলব না। নিজের ফসল নিজে উৎপাদন করব, নিজের দেশকে নিজে গড়ে তোলব। এ কথা যদি মাথায় রাখতে পারি, আত্মমর্যাদাবোধ নিয়ে যদি চলতে পারি তাহলে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

 

এর আগে প্রধানমন্ত্রী সবার কাছে অনুরোধ করে বলেন, আমাদের কোনো রকম বিলাসিতা চলবে না। বিশ্ব অর্থনীতি মন্দার ধাক্কা আমাদের ওপর এসে পড়বে এবং পড়তে যাচ্ছে, পড়েছে। এটা মাথায় রাখতে হবে। সারা বিশ্ব হচ্ছে এখন গ্লোবাল ভিলেজ। একে অপরের ওপর নির্ভরশীল। সেটা মাথায় রেখে সতর্কতার সঙ্গে চলার অনুরোধ জানাব।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ২ কোটি ৫৩ লাখ শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিয়ে থাকি। বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ভূমিহীন ৩৫ লাখ মানুষকে ঘর-বাড়ি তৈরি করে দিচ্ছি। এ কাজে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীর অবদান রয়েছে বলেও জানান তিনি।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট