চট্টগ্রাম বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

১৯ অক্টোবর, ২০২২ | ৫:৪৪ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

ভোটের গোপন কক্ষে সিসি ক্যামেরা মৌলিক অধিকারে হস্তক্ষেপ : তথ্যমন্ত্রী

ভোটের গোপন কক্ষে সিসিটিভি ক্যামেরা থাকলে সেটি ভোটারদের মৌলিক অধিকারে হস্তক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, সেখানে মানুষ গোপনে ভোট দেবে। যদি ক্যামেরা লাগানো হয় তাহলে তো সেটা গোপন থাকে না। এটা সাধারণ মানুষ ও আইনজ্ঞদের অভিমত। নির্বাচন কমিশন যদি এটা দেখে ও অন্যদের দেখায় তাহলে সেটা ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এর আগের মেয়র নির্বাচনে সম্ভবত শামীম ওসমান কাকে ভোট দিয়েছেন, সেটি গণমাধ্যমের সামনে দেখিয়েছিলেন। এরপর নির্বাচন কমিশন তাকে নোটিশ করেছিল যে, আপনি কাকে ভোট দিয়েছেন সেটি গণমাধ্যমে দেখাতে পারেন না। জনসম্মুখে দেখাতে পারেন না। যে নির্বাচন কমিশন নোটিশ দিয়েছিল সেই নির্বাচন কমিশন যদি ক্যামেরা লাগিয়ে নিজে দেখে ও অন্যদের দেখায়, সেটি ব্যক্তিগত গোপনীয়তার লঙ্ঘন। ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা লাগানো যেতে পারে, গোপন কক্ষে নয়—এটি অন্যদের অভিমত।

 

চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ার এক বছর আগেই তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক সচিবকে অবসরে পাঠানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অন্তর্নিহিত কারণ আমি জানি না। কারণ ছাড়া তো এ ধরনের সিদ্ধান্ত হয় না। কারণ নিশ্চয়ই আছে। এখন কারও ব্যাপারে আমার অভিযোগ-অনুযোগ নেই। আমি সবার সাথে কাজ করতে পারি।

তিনি আরও বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যে তিনজন পুলিশ কর্মকর্তাকে অবসরে পাঠিয়েছে, সে বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যাখ্যা করেছেন, উনি বলেছেন তারা কাজ করতেন না। অনেকগুলো কারণ ব্যাখ্যা করেছেন। আমার মনে হয় না, সেটা নিয়ে আর ব্যাখ্যা দেওয়ার প্রয়োজন আছে।

 

পূর্বকোণ/এএস

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট