চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ

মোহাম্মদ আলী

বছরে ১২ হাজার লোক পাড়ি দেবেন জাপানে

বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর ১২ হাজার লোক নেবে জাপান। শিল্প কারখানা, নির্মাণ খাত, নার্স ও বয়স্কদের পরিচর্যা-এ চারটি খাতে এসব লোক নেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশ সরকারের ব্যবস্থাপনায় এসব লোক সরাসরি সেদেশে যাবে। তার আগে গমেনেচ্ছুদের জাপানি ভাষার দক্ষতা ও ফিজিক্যাল টেস্ট নেওয়া হবে। এসব টেস্টে উত্তীর্ণ হলেই জাপান যেতে পারবে আগ্রহীরা।

এদিকে জাপান গমেনেচ্ছু বাংলাদেশিদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা, অন্যান্য দক্ষতা ও এখানকার কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলো দেখতে আইএম জাপান নামে সেদেশের ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশনের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে এসেছে। দলটি ঢাকা ও চট্টগ্রামের কয়েকটি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শন করছেন বলে জানা গেছে।

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো’র (বিএমইটি) সূত্র জানায়, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং আইএম জাপান (ইন্টারন্যাশনাল ম্যানপাওয়ার ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন জাপান) এর মধ্যে ২০১৭ সালে ৩ মার্চ একটি এমওইউ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এ চুক্তির আলোকে জাপানের টেকনিক্যাল ইন্টার্ন ট্রেনিং প্রোগ্রামের (টিআইটিপি) আওতায় আইএম জাপান বিনা অভিবাসন ব্যয়ে টেকনিক্যাল ইন্টার্ন হিসেবে বাংলাদেশের বেকার যুবকদের জাপানে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে আসছে।

টেকনিক্যাল ইন্টার্ন হিসেবে তারা জাপানের বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানে জাপানের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে কাজ করে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি দক্ষতা অর্জন করার সুযোগ পাচ্ছে। টেকনিক্যাল ইন্টার্ন হিসেবে বাংলাদেশ হতে আরো অধিক সংখ্যক কর্মী গ্রহণের লক্ষ্যে আইএম জাপান থেকে উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল বর্তমানে বাংলাদেশ সফরে রয়েছেন। এটি ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো’র (বিএমইটি) মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. শহীদুল আলম এনডিসি পুর্বকোণকে বলেন, ‘আইএম জাপানের একটি প্রতিনধিদল বর্তমানে বাংলাদেশে সফরে রয়েছেন। দলটি ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন এলাকার কয়েকটি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন। একই সাথে সেদেশে লোক নিয়োগের ব্যাপারে নানা বিষয়ে কথা বলবেন।’

এদিকে জাপানের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলটি চট্টগ্রামের বাংলাদেশ-কোরিয়া কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (বিকেটিটিসি) ও মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন বলে জানা গেছে। সেখানে তারা সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে কথা বলবেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বাংলাদেশ-কোরিয়া কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (বিকেটিটিসি) চট্টগ্রাম এর প্রিন্সিপাল ইঞ্জিনিয়ার মো. নুরুজ্জামান পূর্বকোণকে বলেন, ‘২০১৮ সাল থেকে বাংলাদেশ থেকে আইএম জাপান (ইন্টারন্যাশনাল ম্যানপাওয়ার ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন জাপান) লোক নিয়ে যাচ্ছে। ২০১৮ ও ২০১৯ সালে জাপানে লোক নিয়ে গেলেও করোনার কারণে দুই বছর বন্ধ ছিল। বর্তমানে পুনরায় লোক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

আন্তর্জাতিক এ সংস্থাটির মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে মাসে এক হাজার করে বছরে ১২ হাজার লোক নিয়ে যাবে জাপান। এ জন্য বাংলাদেশ-কোরিয়া কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (বিকেটিটিসি) চট্টগ্রামে গত ২৮ আগস্ট থেকে পহেলা সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পাঁচদিন ব্যাপী পরীক্ষায় ৮৩ জন অংশ নেয়। তাতে চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে ১৮ জন জাপানি ভাষা ও ফিজিক্যাল টেস্টে উত্তীর্ণ হয়।’

চট্টগ্রাম জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল আলম মজুমদার পূর্বকোণকে বলেন, ‘দেশের দক্ষ জনশক্তি রপ্তানি আরো বাড়াতে সরকারের আবেদনের প্রেক্ষিতে জাপানের প্রতিনিধি দলটি বর্তমানে বাংলাদেশ সফরে রয়েছেন। আশা করি এ সফরের পর জাপানে জনশক্তি রপ্তানি আরো বাড়বে।’

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট