চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ১:৫৮ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতির ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল

বরগুনার বেতাগী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বিএম আদনান খালিদ মিথুনের ইয়াবা সেবনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

সংগঠনের সভাপতির এ রকম ভিডিও ভাইরাল হওয়ায় ক্ষোভ বিরাজ করছে তৃণমূল ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের মধ্যে।

সোমবার (১৯ আগস্ট) রাত থেকে ১৫ সেকেন্ডের ইয়াবা সেবনের ভিডিওটি ফেসবুকের মেসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়ে। এতে গোটা উপজেলায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটিতে দেখা যায়, ছাত্রলীগ সভাপতি মিথুন একটি রুমের মধ্যে বসে ইয়াবা সেবন করছেন। পাশে বসে তাকে ইয়াবা সেবনে অন্য একজন সহযোগিতা করছেন। কিন্তু ওই ব্যক্তির চেহারা ভিডিওটিতে দেখা না যাওয়ায় তাকে শনাক্ত করা যায়নি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেতাগী উপজেলা ছাত্রলীগের একাধিক নেতাকর্মী বলেন, ‘সভাপতি আদনান খালিদ মিথুন শুধু মাদকসেবীই না, তিনি মাদকের ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত। ছাত্রলীগের সভাপতি পদের প্রভাব খাটিয়ে তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ এসব কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছেন। নতুন কেউ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসুক তিনি তা চান না। তাই সে দীর্ঘদিন যাবৎ সভাপতির পদ দখল করে আছেন। কমিটি হওয়া পঁfচ বছর অতিক্রম করলেও এখন পর্যন্ত সম্মেলন হতে দিচ্ছেন না। এতে নতুন নেতৃত্ব প্রস্ফুঠিত হওয়ার আগেই ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে।’

এ বিষয়ে মিথুনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘কীভাবে কারা আমার একটি ভিডিও ছড়িয়ে দিয়েছে আমি বলতে পারি না। তবে যে ভিডিওটি ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সেটি আজ থেকে পাঁচ-ছয় বছর আগে শীতের সময়ের। আমরা কয়েকজন বন্ধু-বান্ধব মিলে কৌতূহলবশত এটি সেবন করে দেখেছিলাম। কিন্তু আমি মাদকসেবী নই। আমি যেকোনও পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত আছি। প্রয়োজনে আমাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হোক, আমি কোনও মাদক সেবন করি কিনা।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনারা যে ভিডিওটি পেয়েছেন তা নিয়ে নিউজ না করে একটু অপেক্ষা করুন, আমি বরগুনা আসছি। আপনাদের সঙ্গে দেখা করবো। যা প্রয়োজন আমি তাই করবো, তবুও নিউজটি করবেন না।’

জানা গেছে, মিথুন বেতাগী উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি প্রয়াত আলতাফ হোসেন বিশ্বাসের ছেলে। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে মিথুনের বাবা আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন। এর পর থেকেই মিথুনের ছাত্রলীগের রাজনীতিতে উত্থান শুরু হয়। সর্বশেষ ২০১৭ সালে বেতাগী উপজেলা ছাত্রলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে মিথুন সভাপতি নির্বাচিত হয়। এই কমিটি মেয়াদ অতিক্রম করে পাঁচ বছর যাবৎ দায়িত্ব পালন করছে।

ভিডিও প্রসঙ্গে বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল কবির রেজা বলেন, ‘মিথুনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে বলে আমি শুনেছি। এখনও ভিডিওটি দেখিনি। তবে বিষয়টি আমরা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি। যদি এরকম কোনও ভিডিও থেকে থাকে এবং মাদক সেবনের সত্যতা পাওয়া যায়, তাহলে আমরা তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’

পূর্বকোণ/আর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট