চট্টগ্রাম রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

সর্বশেষ:

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

আজ পবিত্র আখেরি চাহার সোম্বা

আজ ২১ সেপ্টেম্বর পবিত্র আখেরি চাহার সোম্বা। আখেরি চাহার সোম্বা মূলত ফার্সি পরিভাষা। ফার্সি শব্দ আখেরি অর্থ শেষ। চাহার সোম্বা অর্থ বুধবার। অর্থাৎ সফর মাসের শেষ বুধবারে হজরত মোহাম্মদ (সা.)-এর সাময়িক সুস্থতাকে স্মরণ করে মুসলমানরা যে ইবাদত করেন, তাই আখেরি চাহার সোম্বা। বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশের মুসলিমরা রাষ্ট্রীয় ও ব্যক্তি উদ্যোগে এ উৎসব-ইবাদত যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে খুশির দিন হিসেবে উদযাপন করে থাকেন। এ উপলক্ষে আজ বুধবার বাদ জোহর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে আলোচনা সভা, দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

রাসলুল্লাহ (সা.) এর প্রতিটি কথা, প্রতিটি কাজ আর সমস্ত আচার-ব্যবহার, চালচলন, গতিবিধি, পদক্ষেপ, সময়-ক্ষণ তথা সমগ্র জীবনই উত্তম আদর্শের অনুপম নিদর্শন। যা কোরআন শরীফে নানা আঙ্গিকে ব্যক্ত হয়েছে। তবে মক্কায় তাঁর নবুওয়্যাত-রিসালত জীবনের ১৩টি বছরই তাঁকে মক্কার কাফের কোরাইশদের নানামুখী কঠোর নির্যাতন নীরবে সহ্য করতে হয়েছে।

হিজরতের পর মদীনায় আগমনের পরও রাসলুল্লাহ (সা.) ইহুদী-মোনাফেকদের নতুন নতুন ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। মক্কার কাফেররা তাঁকে, মদীনার ইহুদী মোনাফেকদের যোগ সাজশে স্বস্তিতে-শান্তিতে থাকতে দেয়নি এবং তারা সর্বদা আগ্রাসী ষড়যন্ত্র লিপ্ত থাকে এমনকি বহু রণাঙ্গনে অবতীর্ণ হতে বাধ্য করে এবং সর্বক্ষেত্রেই ওরা শোচনীয় পরাজয় বরণ করে। ঐতিহাসিক সত্য এই যে, ওরা মহানবী (সা.) এর প্রাণনাশের পর্যন্ত অপচেষ্টা চালাতে থাকে। মোনাফেক ইহুদী চক্র ও বিধর্মীরা মর্মে মর্মে অনুভব করতে পারে যে, ইসলামের বিজয়কে প্রতিহত করা সম্ভব নয়।

অবশেষে রসুলুল্লাহ (সা.) এর অসুস্থ হবার খবর ছড়িয়ে পড়লে ইহুদী ও মোনাফেকদের আনন্দের সীমা রইল না, অপর দিকে মুসলমানদের দুঃশ্চিন্তাও বেড়ে যেতে থাকে, তারা দারুণভাবে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন, হুজুর (সা.) এর চিরবিদায়ের আশঙ্কায় । তাদের চরম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যে হঠাৎ সাময়িকভাবে তিনি আরোগ্য লাভ করার সংবাদে সাহাবায়ে কেরামের মাঝে যে বিপুল আনন্দ-উল্লাসের সঞ্চার হয়, তা এক অভূতপূর্ব ঘটনা। মহানবী (সা.) এই দিনে গোসল করেছিলেন। এরপর আর তিনি গোসল করতে পারেননি। কারণ তৎপর তাঁর পীড়া বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয়। সবশেষে ১২ রবিউল আউয়াল তিনি ইন্তেকাল করেন।

প্রিয় নবীর (সা.) সুস্থতার দিন হিসেবে সাহাবায়ে কেরাম সফর মাসের শেষ বুধবারে দান-সাদাকা ও ইবাদত বন্দেগি করতেন। আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায়ের দিবস হিসেবে আখেরি চাহার সোম্বা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট