চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

১২ আগস্ট, ২০২২ | ৯:২০ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পাচার ঠেকাতেই তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী

ভারতে পাচার ঠেকাতে দেশে তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) দুপুরে রাজশাহীর মোহনপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিদ শোক সভায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

মোহনপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এই শোকসভার আয়োজন ছিল। তাতে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে তেলের দাম কম ছিল। পশ্চিমবঙ্গ থেকে যত ট্রাক আসতো তারা তেল ভর্তি করে নিয়ে যেত। আমাদের দেশ থেকে তেল পাচার হয়ে যাচ্ছিল। আমরা মূল্য সমন্বয় করে পশ্চিম বাংলার সমান করেছি মাত্র। তবে এই অবস্থা দীর্ঘদিন থাকবে না।

তিনি বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পুরো পৃথিবীতে সংকট চলছে। সারা বিশ্বে তেলের দাম ১০০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ৬৫-৭০ ডলারের তেলের দাম ১৭০ ডলার হয়েছে। ৪ ডলারের এলএনজি গ্যাস এখন কিনতে হচ্ছে ৪২ ডলারে। দাম দশ গুন বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রতিবেশী দেশ ভারতে তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে আরও ছয় মাস আগে। দাম বাড়িয়ে আমরা তাদের সমান করেছি। বিশ্ব বাজারে তেলের দাম কমলে আমাদের দেশেও তেলের দাম কমানো হবে। এটা নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার সুযোগ নেই বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

দেশের চলমান লোডশেডিং পরিস্থিতি সাময়িক উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছেন। তবে বিশ্ব পরিস্থিতির কারণে বর্তমানে লোডশেডিং হচ্ছে। তবে নভেম্বর-ডিসেম্বর নাগাদ লোডশেডিং সমস্যা সমাধান হবে।

লোডশেডিং নিয়ে বিএনপির রাজনীতির সমালোচনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এখন ধানের শীষ বাদ দিয়ে হ্যারিকেন ধরেছে। প্রথমে মুসলিম লীগের মার্কা ছিল বাইসাইকেল। মার্কা পরিতবর্তন করে হ্যারিকেন করা হয়েছিল। তখন হ্যারিকেন দিয়েও মুসলিম লীগকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এখন বিএনপিও ধানের শীষ বাদ দিয়ে হ্যারিকেন ধরেছে। হয়তো হ্যারিকেন দিয়েও আর কদিন পরে বিএনপিকেও খুঁজে পাওয়া যাবে না। মুসলিম লীগের মতো তারাও হাওয়ায় মিলিয়ে যাবে।

বঙ্গবন্ধুর রক্ত পরাভব মানে না উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু আপসের রাজনীতি করেন নাই। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, আমি প্রধানমন্ত্রিত্ব চাই না, আমি বাংলাদেশের মানুষের অধিকার চাই। তার কন্যাও আপসের রাজনীতি করেন না। দেশ যেভাবে এগিয়ে গেছে, আজ তা প্রমাণিত।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে শোকসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা ও নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার প্রমুখ।

 

পূর্বকোণ/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট