চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

২৮ মে, ২০২২ | ১:৪৬ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ পরামর্শ সভা পিছিয়ে গেছে

বাংলাদেশ ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের যৌথ পরামর্শক কমিশনের (জেসিসি) সভা পিছিয়ে গেছে। আগামী ৩০ মে জয়েন্ট কসনালটেটিভ কমিশনের বৈঠক দিল্লিতে হওয়ার কথা ছিল। এখন সেটি জুনের মাঝামাঝি করা নিয়ে আলোচনা চলছে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেছেন, আসামের গৌহাটিতে নদী কনফারেন্সে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকরের মধ্যে সাইডলাইনে বৈঠক হয়। ওখানে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার পরে জেসিসি বৈঠকটি পিছিয়ে দেওয়া হয়।

দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের সামগ্রিক দিক নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা ছিল এ সভায়। একইসঙ্গে আশা করা হচ্ছিল বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নয়াদিল্লি সফরের বিষয়টিও চূড়ান্ত হবে এ সভা থেকে।

মাশফি বিনতে শামস জানান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও ভার‌তের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর আলাপ ক‌রে সিদ্ধান্ত নি‌য়ে‌ছেন বৈঠক এখন কর‌বেন না। এটা‌কে আমি ঠিক স্থ‌গিত বলব না, ক‌য়েকটা দিন প‌রে হ‌বে। ত‌বে জে‌সি‌সি বৈঠক জুন মা‌সেই হ‌বে।

সচিব মাশফি ব‌লেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী গৌহাটিতে নদী বিষয়ক বৈঠক শেষ ক‌রে ঢাকায় ফির‌বেন।

সোমবার নয়া‌দি‌ল্লিতে জেসিসি সভা হওয়ার কথা ছিল। ওই বৈঠ‌কের প্রস্তু‌তি নি‌য়ে প্রতি‌নি‌ধি দলসহ শুক্রবার ঢাকা ছা‌ড়েন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মো‌মেন। এরইমধ্যে তা পেছানোর সিদ্ধান্ত এলো। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বর্তমানে গৌহা‌টি‌তে নদী বিষয়ক বৈঠকে রয়েছেন।

২০১২ সালে নয়াদিল্লিতে প্রথম জেসিসি বৈঠকে বসে বাংলাদেশ-ভারত। গত ১০ বছরে মোট ছয়বার জেসিসি বৈঠক হয়। সর্বশেষ ২০২০ সালে করোনা মহামারির মধ্যে ঢাকার নেতৃত্বে জেসিসি ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়। এরপর দুই দেশে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় সপ্তম জেসিসি বৈঠক নিয়ে বার বার অনিশ্চয়তা দেখা যায়। প্রায় ১৮ মাস পরে সপ্তম বারের মতো বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়, এখন আবার তা পিছিয়েও গেল।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট