চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

২৮ জুলাই, ২০১৯ | ৫:৫৪ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

মাদ্রাসাছাত্রের সাজানো ‘ছেলেধরা’ গল্প

ছেলেধরা গল্প বানিয়ে ফেঁসে গেল মাদ্রাসার ক্লাস ফাঁকি দেওয়া এক ছাত্র। রবিবার (২৮ জুলাই) মেহেরপুরের ময়ামারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ছেলেধরা গল্প বানানো সেই ছাত্র ময়ামারী গ্রামের উজুল হোসেনের ছেলে শরিফ। সে আমঝুপি মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র।

মাদ্রাসার শিক্ষক আলমগীর হোসেন জানান, ৪-৫ দিন শরিফকে ক্লাসে পাওয়া যায়নি। রবিবার সকালের দিকে শরিফ মাদ্রাসায় যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। পথিমধ্যে সে ব্লেড দিয়ে তার হাতে হালকা ভাবে আঁচড় দেয়। পরে সে তার ফুফুকে জানায়, এক মোটরসাইকেল চালক তাকে রাস্তা থেকে অপহরণ করার চেষ্টা করেছে।

এরপর মুহূর্তের মধ্যেই ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে পরে। পরে শরিফকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সদর থানা পুলিশের একটি দল খবর পেয়ে হাসপাতালে শরিফের সাথে কথা বলতে যায় ।

তার কথাবার্তা ও আচরণ এবং মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের কথা শুনে পুলিশের সন্দেহ হয়। পরে শরিফকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সে জানায় ক্লাস ফাঁকি দিতেই সে এ গল্প সাজিয়েছিল।

পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর মুচলেকা নিয়ে তাকে তার পিতামাতার হাতে তুলে দেয়।

পূর্বকোণ/তাসফিয়া

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 284 People

সম্পর্কিত পোস্ট