চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

২৫ জুলাই, ২০১৯ | ২:০৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক হ ঢাকা অফিস

বিএনপির কাছে বিশ দলের জোটের প্রয়োজনীয়তা শেষ

হ একলা চলো নীতিতে
চলতে চায় দলটি
হ কর্মসূচিতে ২০ দলীয়
জোটকে সম্পৃক্ত করতে
চাচ্ছে না তারা

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিশ দলের জোটের নেতৃত্বে বিএনপি থাকলেও এই দুই জোটের কোনো কর্মসূচিতে আর আগ্রহ নেই দলটির। বিএনপি মনে করছে, আপাতত বিশ দলের জোটের আর কোন প্রয়োজন নেই। তাই দলটি আর জোটের কোন বৈঠক ডাকার পক্ষে নয়। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিয়ে বিশ দলের জোট ভাঙ্গা কিংবা ত্যাগ করবে না বিএনপি। বিশ দলের জোটের সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
সূত্র জানায়, বিএনপি আর কোনও ধরনের জোটের পক্ষে নেই। তারা চাইছে স্বতন্ত্র চলতে। যে কারণে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিশ দলের জোটকে বাদ দিয়ে একলা চলো নীতিতে চলতে চায় বিএনপি। এ কারণে বিএনপি তাদের কোন কর্মসূচিতে ২০ দলীয় জোটকে সম্পৃক্ত করতে চাচ্ছে না। ইতিমধ্যে কুড়ি দলের জোট থেকে অনেক শরীক দল বের হয়ে গেছে। সামনে আরো কয়েকটি দল জোট থেকে বের হয়ে যাওয়ারও আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বরিশাল ও চট্টগ্রামে বিভাগীয় সমাবেশে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট কিংবা বিশ দলের জোটের কোন শীর্ষ নেতাদেরকে আমন্ত্রণ জানায়নি দলটি।
এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক শীর্ষ নেতা বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, বিশ দলের জোটে জাতীয় পর্যায়ের নেতা বর্তমানে আছেন, এলডিপির সভাপতি অলি আহমেদ এবং কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম। এই দু’জন ব্যতিত বিশ দলের জোটের আর কোন নেতা বিএনপির তেমন কাজে লাগবে না। বরং অন্যরা বলতে গেলে বিএনপির জন্য বোঝা। তাই সংগঠন গোছাতে বিএনপি কৌশলগতভাবে জোটকে বাইরে রেখে কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে ভিন্ন কথা বলছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের। তিনি বলেন, অনেকের সঙ্গেই বন্ধুত্ব থাকে। কিন্তু সব সময় কি বন্ধুর সঙ্গে একসাথে ভাত খায়? কখনো খায়, আবার কখনো আলাদা খায়। আর বিএনপি একটি পার্টি। সুতরাং বিএনপি কখনো একটা আলাদা কর্মসূচি দেওয়া মানেই শরীকদেরকে বাদ দেওয়া নয়।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 328 People

সম্পর্কিত পোস্ট