চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৫ জুলাই, ২০১৯ | ১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

এ বছরেই চলবে ৫ নতুন ট্রেন

ষ এসি ও ওয়াই-ফাইসহ নতুন
শাটল পাচ্ছে চবি শিক্ষার্থীরা

ষ ঈদ যাত্রায় ৮টি স্পেশাল ট্রেন
অতিরিক্ত ১৪শ কোচ সংযোজন

চলতি বছরেই ৫টি নতুন ট্রেন চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। গতকাল বুধবার দুপুর ১২টায় রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের পাহাড়তলী কারখানা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এতথ্য জানান তিনি। রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, চলতি বছরে ২২০টি অত্যাধুনিক যাত্রীবাহী কোচ দেশে পৌঁছাবে। এসব কোচ দিয়ে চলতি বছরে ৫টি ও ২০২০ সালের জুনের মধ্যে আরো ৭টি নতুন ট্রেন চালু করা হবে। তবে এক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় বাধা হলো ইঞ্জিন সংকট। এজন্য ভারত থেকে ২০টি ইঞ্জিন ভাড়ায় আনার বিষয়টি বিবেচনা করছে রেলওয়ে। এছাড়া চলমান ট্রেনগুলো মেয়াদোত্তীর্ণ ইঞ্জিন দ্বারা চালাতে গিয়ে ইঞ্জিন বিকল হয়ে সিডিউল বিপর্যয় ঘটছে। আমরা চেষ্টা করছি রেলওয়েতে যে সকল ত্রুটি আছে তার সব কিছু সমাধান করতে। তাই আবারও রেলওয়ের সুনাম ফিরিয়ে আনতে পুরো রেল বিভাগ নতুনভাবে সাজানো হচ্ছে। আমরা চেষ্টা করছি সব কিছুর সমাধান করে রেলওয়েকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে।’ মিটারগেজের ২৬টি কোচ দিয়ে নতুন ট্রেন চালু করার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মন্ত্রী বলেন, রংপুরে মাত্র একটি ট্রেন যাওয়া আসা করে। যেটির জন্য প্রায়শই বিব্রতকর অবস্থায় পড়ি। কারণ একটি ট্রেন হওয়াতে ৫ ঘণ্টা থেকে ৬ ঘণ্টা ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ঘটছে। সেটি মাথায় রেখে নতুন ২৬টি কোচ দিয়ে ঈদের আগেই একটি নতুন ট্রেন ওই রুটে যুক্ত করা হবে। ঈদ যাত্রা নিয়ে রেলওয়ের

প্রস্তুতি জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘যাত্রীদের নিরাপদ ঈদে যাত্রা উপহার দিতে রেলওয়ে বরাবরই বিশেষ প্রস্তুতি নেয়। এবারও ৮টি স্পেশাল ট্রেন চলবে বিভিন্ন রুটে। এছাড়া ঈদ উপলক্ষে ট্রেনে অতিরিক্ত ১৪০০ কোচ সংযোজন করা হবে।’ এর আগে সকালে হালিশহর রেলওয়ের ট্রেনিং একাডেমি পরিদর্শনে যান রেলমন্ত্রী। এ সময় রেলওয়ের বিভিন্ন স্থাপনা ও পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকা ভবন এবং পোর্ট ইয়ার্ড পরিদর্শন করার কথা জানান তিনি।
পাহাড়তলী কারখানা পরিদর্শন শেষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেনের বিভিন্ন সুবিধা-অসুবিধা জানতে বিকাল ৩টা নাগাদ পুরাতন রেল স্টেশন থেকে শাটল ট্রেনে চড়ে বিকেল সোয়া ৪ টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যান রেলমন্ত্রী। সেখানে পৌঁছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) এর শিক্ষার্থীদের জন্য এসি, ওয়াই-ফাইসহ ১৬ বগি বিশিষ্ট নতুন একটি ট্রেন দেয়ার ঘোষণা দেন রেলমন্ত্রী নূরল ইসলাম সুজন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সম্মেলন কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে রেলমন্ত্রী ও রেলওয়ের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের মতবিনিময় সভায় তিনি এই ঘোষণা দেন।
রেলমন্ত্রী বলেন, ‘২০২০ এর জুনের মধ্যে বিদেশ থেকে পর্যায়ক্রমে ২০০ কোচ আসবে। সেখান থেকে ১৫-১৬ টি কোচ দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নতুন একটি ট্রেন দেয়া হবে। সেখানে থাকবে এসি, ওয়াই-ফাইসহ টয়লেটের ব্যবস্থা। তবে সেই সাথে বর্তমানে যে শাটল ট্রেনটি আছে সেটাও চলবে এবং এতে ফ্যানের ব্যবস্থা থাকবে।’
চবি রুটের রেললাইনের দুরবস্থার সমালোচনা করে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘চবি শিক্ষার্থীদের শাটল ট্রেনের অবস্থা জানতে আজ (গতকাল) শাটলে চড়ে আমি ক্যাম্পাসে এসেছি। আমার মনে হচ্ছে চবি রুটের সমস্ত রেললাইনটি ঝুঁকিপূর্ণ। এ সময় খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে চবি রুটে সংস্কারের কাজ করতে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের জিএম এবং প্রধান প্রকৌশলীকে নির্দেশ দেন তিনি। একই সাথে এর পিছনে কারো গাফলতি আছে কিনা তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়ারও নির্দেশ দেন তিনি।
মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামান, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক নাসির উদ্দিন আহমেদ ও ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর প্রণব মিত্র চৌধুরী। সভায় শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে রেলমন্ত্রীর কাছে বিভিন্ন সমস্যা ও অভিযোগের কথা তুলে ধরনে চাকসুর সাবেক ভিপি মাজহারুল হক শাহ চৌধুরী, চবি ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল হক রুবেল, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু প্রমুখ।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 860 People

সম্পর্কিত পোস্ট