চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৪ জুলাই, ২০১৯ | ৮:৫০ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক

চতুর্থ দিনের মতো আন্দোলনে ঢাবি’র শিক্ষার্থীরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে চতুর্থ দিনের মতো আজ বুধবারও (২৪ ‍জুলাই) চলছে আন্দোলন। প্রশাসনিক ভবনগুলোয় তালা ঝোলানোর চেষ্টা করলেও ছাত্রলীগের সরব উপস্থিতির কারণে তা সম্ভব হয়নি। টানা তিন দিনের অচলাবস্থার পর আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু কিছু বিভাগে ক্লাস চললেও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল কম। আগামীকাল বৃহস্পতিবারও কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

রবিবার থেকে শুরু হওয়া এ আন্দোলন টানা তিন দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেন একদল শিক্ষার্থী। সাত কলেজ সংকটের স্থায়ী সমাধানের দাবিতে গতকাল উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেয় ছাত্রলীগ। স্মারকলিপি দেওয়ার আগে দুপুরে অপরাজেয় বাংলায় এক সমাবেশে ক্লাস-পরীক্ষায় বাধা সৃষ্টিকারীদের ‘দাঁতভাঙা জবাব’ দেয়ার ঘোষণাও দেন সংগঠনটির নেতারা। আর আন্দোলনকারীরা তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ ও ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন।

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আজ ভোর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন এলাকা, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ এলাকা, রেজিস্ট্রার ভবন, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট, উপাচার্য কার্যালয় এলাকা, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ এলাকা, বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগার এলাকা, আইন অনুষদ এলাকা, কার্জন হল এলাকা, এ এফ মুজিবুর রহমান গণিত ভবন এলাকা ও মোকাররম ভবন এলাকায় অবস্থান নেন।

আন্দোলনকারীদের অন্যতম সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নাহিদ ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে জানান, সাত কলেজের অধিভুক্তি পুনর্বিবেচনা করার বিষয়টি ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগসহ প্রায় সব প্যানেলের ইশতেহারে ছিল। কিন্তু নির্বাচনের পর ডাকসু’র পক্ষ থেকে কোনো ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। ডাকসু ও উপাচার্য বরাবর এ ইস্যুতে স্মারকলিপি দিয়েও যখন কিছু হলো না, তখন আমরা বাধ্য হয়েই আন্দোলন শুরু করি। স্বতঃস্ফূর্তভাবে এ আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। কিন্তু ছাত্রলীগ গতকাল আমাদের ওপর হামলা করে । আজও বাধা দিয়েছে তারা।

পূর্বকোণ/রাশেদ

The Post Viewed By: 281 People

সম্পর্কিত পোস্ট