চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৪ জুলাই, ২০১৯ | ২:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা অফিস

দেবর-ভাবির লড়াই

এইচ এম এরশাদের ভাই জি এম কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান মানেন না দলটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ। জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতার প্যাডে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রওশন এরশাদ এ কথা জানান। রওশন বলেন, জি এম কাদেরকে জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ঘোষণা করার আগে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্যদের মতামত নেওয়া হয়নি। ফলে জি এম কাদের এখনো ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানই আছেন।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রওশন বলেন, সম্প্রতি তিনি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকে জানতে পেরেছেন, জাপার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদেরকে চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তাঁর দাবি, এ নিয়ে আদৌ কোনো যথাযথ ফোরামে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়নি। দলীয় গঠনতন্ত্রের ধারা উল্লেখ করে এরশাদপত্নী বলেন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালনকালে জাপার গঠনতন্ত্রের ধারা ২০ (২)-এর খ-এ দেওয়া ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারবেন। মনোনীত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রেসিডিয়ামের সংখ্যাগরিষ্ঠদের মতামতের ভিত্তিতে দায়িত্ব পালন করবেন। চেয়ারম্যানের অবর্তমানে ধারা ২০ (২)-এর ‘ক’-কে উপেক্ষা করা যাবে না। তিনি আশা করেন, বর্তমানে যিনি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, তিনি দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পরবর্তী চেয়ারম্যান না হওয়া পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়, জাপার অনেক জ্যেষ্ঠ নেতা রওশন এরশাদের বক্তব্যের সঙ্গে একমত। বিজ্ঞপ্তিতে দলের নয়জন নেতার নামও উল্লেখ করা হয়। তাঁরা হলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাংসদ আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, ফখরুল ইমাম, সেলিম ওসমান, নাসরিন জাহান রত্না, মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আবদুস সবুর আসুদ ও দেলোয়ার হোসেন এবং সাংসদ রওশন আরা মান্নান ও লিয়াকত হোসেন খোকা।
এ নিয়ে জি এম কাদেরের বক্তব্য হচ্ছে, জাতীয় পার্টিতে কোন বিভেদ নেই। জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধভাবে রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করছে। নেতৃত্বের প্রশ্নে জাতীয় পার্টিতে কোন দ্বন্দ নেই। গতকাল দলটির চেয়ারম্যানের দপ্তরে উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে অনির্ধারিত আলোচনায় এ কথা বলেন। রওশন এরশাদের হাতে লেখা একটি বিবৃতির প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেন, বিবৃতিটি হাতে লেখা এবং দেখে মনে হয়নি এটি বিরোধী দলীয় উপনেতা বেগম রওশন এরশাদের স্বাক্ষর। তাই সন্দেহের অবকাশ রয়েছে। তিনি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আমাদের পরিবারে পিতৃতুল্য ছিলেন, সেই ভাবেই বেগম রওশন এরশাদ আমাদের মায়ের মত। বলেন, পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নির্দেশনায় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করেছি। এখনো পল্লীবন্ধুর নির্দেশনাতেই চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করছি। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ গঠনতন্ত্র অনুসরণ করেই চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন। তারা যে নামেই সম্বোধন করবে তাতে কোন সমস্যা নেই। জাতীয় পার্টিতে কাজ করাটাই আসল কথা। তিনি বলেন, কোন সমস্যা থাকলে আমরা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সব সমস্যার সমাধান করবো।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 489 People

সম্পর্কিত পোস্ট