চট্টগ্রাম রবিবার, ২২ মে, ২০২২

সর্বশেষ:

২৫ জানুয়ারি, ২০২২ | ১২:১৩ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণ মামলায় আদালতে মামুনুল হক

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় তৃতীয় দফায় সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য নারায়ণগঞ্জ আদালতে নেওয়া হয়েছে হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম-মহাসচিব মামুনুল হককে। এ মামলায় রয়েল রিসোর্টের ২ জন কর্মচারী ও সোনারগাঁয়ের একজন যুবলীগ নেতার সাক্ষ্য নেওয়া হবে।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় কঠোর নিরাপত্তা বলয়ের মধ্য দিয়ে কাশিমপুর কারাগার থেকে তাকে আদালপাড়ায় আনা হয়। দুপুর ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে সাক্ষগ্রহণ শুরু হবে।

নারায়ণগঞ্জ আদালতের পুলিশ পরিদর্শক আসাদুজ্জামান বলেন, সকালে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে মামুনুল হককে গাজীপুরর কাশিপুরের কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জের আদালতপাড়ায় আনা হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রকিবুদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, দুপুরে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে তাদের এই সাক্ষ্যগ্রহণ করা হবে। এ সময়ে মামুনুল হককেও আদালতে তোলা হবে। এর আগে গত বছর ১৩ ডিসেম্বর রিসোর্টের ৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর ও ২৪ নভেম্বর মামলার বাদি ঝর্ণা বেগম আদালতে স্বাক্ষ্য দেন। এ মামলায় ৪৩ জন সাক্ষী রয়েছে বলে জানান রকিবুদ্দিন।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রয়েল রিসোর্টে এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করছিলেন মামুনুল হক। ওই সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এসে মামুনুল হককে ঘেরাও করেন। পরে স্থানীয় হেফাজতের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা এসে রিসোর্টে ব্যাপক ভাঙচুর করেন এবং তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যান। পরে ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ মামলা করেন ওই নারী।

পূর্বকোণ/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট