চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২১

সর্বশেষ:

২১ অক্টোবর, ২০২১ | ৮:৩১ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

ইকবালকে কোরআন সরবরাহ করেছিল মাজারকর্মী!

কুমিল্লার নানুয়ারদিঘীতে অস্থায়ী পূজামণ্ডপে কোরআন শরীফ রাখার ঘটনা তদন্তে গিয়ে আরও একটি সিসিটিভি ফুটেজ পুলিশের সামনে এসেছে। সেখানে দেখা যায় নানুয়ারদিঘীর দারোগাবাড়ি মাজারের দুই কর্মীর একজন মাজার সংলগ্ন মসজিদে ইকবাল হোসেনের জন্য কোরআন শরিফ রেখে যাচ্ছে। পুলিশ সূত্র জানায়, ওই দুই কর্মী হলেন হাফেজ হুমায়ুন এবং ফয়সাল।

তবে ১২ অক্টোবর রাত ১১টায় তাদের দুজনের মধ্য থেকে কে মসজিদের ভেতরে কোরআন রেখে গিয়েছিল তা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হতে পারেনি । আরেকটি ফুটেজে দেখা যায়, দিবাগত রাত ২টা ১২ মিনিটে ইকবাল মসজিদ থেকে কোরআনটি সংগ্রহ করছে। এরপর সে মসজিদ থেকে বেরিয়ে নানুয়ারদিঘী পূজামণ্ডপে হনুমান মূর্তির ওপর কোরআন শরিফ রেখে আসে।

ইকবালই যে মণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখে এসেছিল, বুধবার সে কথা জানায় পুলিশ। কিন্তু বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি তারা। এর আগে পাওয়া একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, ইকবাল মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসছে এবং কিছুক্ষণ পরে মণ্ডপের হনুমান প্রতিমার গদা নিয়ে হেঁটে যাচ্ছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, “এই মুহূর্তে মোবাইল ফোন ব্যবহার না করায় ইকবালকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে শিগগিরই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে। মন্ত্রী মনে করেন, কুমিল্লার ঘটনায় ইকবালকে কেউ প্ররোচনা দিয়েছে। তাকে আটকের পর ঘটনার পেছনের কারণ বেরিয়ে আসবে। সূত্র : ঢাকা ট্রিবিউন

পূর্বকোণ/আরআর/পারভেজ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1277 People

সম্পর্কিত পোস্ট