চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২১

সর্বশেষ:

১৮ অক্টোবর, ২০২১ | ৪:২২ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

খাবার টেবিলে কনেপক্ষকে মারধর, পালিয়েছে বর-কনে

বউভাত অনুষ্ঠানে পানি খাওয়া নিয়ে তর্কবির্তকের জেরে মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে কনের মা, ভাই-বোনসহ ৫ জন আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মনপুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতদের সবার বাড়ি উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের চরগোয়ালিয়া গ্রামে।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে ভোলার মনপুরায় উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের চরগোয়ালিয়া গ্রামের ৬ নং ওয়ার্ডে বর আল-আমিনের বাড়িতে বউভাতে এ মারামারির ঘটনা ঘটে।
সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকালে এ ঘটনায় কনের বাবা আইয়ুব আলী মনপুরা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

নুরন্নাহার বেগম জানান, উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ের ৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. নুরনবী মিয়ার ছেলে আল-আমিনের কাছে গত বৃহস্পতিবার তার মেয়ে তানজিলা আক্তার মিমের বিয়ে হয়। বিয়ের দুই দিন পর গত রবিবার বরের বাড়িতে বউভাত অনুষ্ঠানে যান কনে বাড়ির লোকজন। সেখানে ঘটক রুবেল কনে পরিবারের কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। পরে বরপক্ষের লোকজন বরের জন্য যৌতুক ও কনের জন্য জামাকাপড় নিয়ে আসেনি কেন, এ নিয়ে কটূক্তি করতে শুরু করে। এ সময় টেবিলে পানি দিতে বললে বরপক্ষ ক্ষেপে যায়। একপর্যায়ে ঘটক রুবেল ও ছিদ্দিকসহ পাঁচ-সাতজন কনেপক্ষকে মারধর শুরু করে। ঘটনার পর থেকে কনেকে নিয়ে বর আল-আমিন পালিয়ে গেছেন।

দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান অলি উল্লা কাজল জানান, বউভাত অনুষ্ঠানে মারামারি ঘটনা ঘটেছে শুনেছি। এবং কনেপক্ষকে ডেকে আইনি প্রদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বলা হয়েছে।

মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদ আহমেদ জানান, বউভাত অনুষ্ঠানে কনেপক্ষের লোকজনকে মারধরের ঘটনায় কনের বাবা আইয়ুব আলী বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন। তদন্তসাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 446 People

সম্পর্কিত পোস্ট