চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

১৪ অক্টোবর, ২০২১ | ৫:০৫ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন কারাগারে

ঢাকার সবুজবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় জামিন বাতিল করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরার আদালত এই আদেশ দেন।

এর আগে, ১৩ সেপ্টেম্বর চিত্তরঞ্জন আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মাহমুদা আক্তার শুনানির ধার্য্য তারিখ পর্যন্ত জামিন মঞ্জুর করেন। বৃহস্পতিবার ধার্য্য তারিখে চিত্তরঞ্জন আদালতে হাজির হয়ে ঢাকা আইনজীবী সমতির সাবেক সভাপতি কাজী নজিব উল্লাহ হিরুর মাধ্যমে জামিন স্থায়ীর আবেদন করেন।

অন্যদিকে বাদী পক্ষে অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান জামিনের বিরোধিতা করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন বাতিল করে আসামি চিত্তরঞ্জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে, ১০ সেপ্টেম্বর রাতে চিত্তরঞ্জনের নারীর শ্লীলতাহানির ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এরপর গত ১১ সেপ্টেম্বর শ্লীলতাহানির অভিযোগে ওই নারী সবুজবাগ থানায় চিত্তরঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। ১২ সেপ্টেম্বর মামলার এজাহার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসে। এরপর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদের আদালত এজাহারটি গ্রহণ করেন। সবুজবাগ থানার এসআই আসলাম আলীকে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে ১৪ অক্টোবর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আদালত।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, রাত পৌনে ১০টার দিকে ওই নারী স্বামীসহ কাউন্সিলরের কার্যালয়ে যান। চাঁদার বিষয়ে জানতে চাইলে চিত্তরঞ্জন দাস ওই নারীকে পাশের কক্ষে বসতে বলেন। পরে চিত্তরঞ্জন ওই কক্ষে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেন এবং তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন।

পূর্বকোণ/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট