চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ অক্টোবর, ২০২১

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৯:৩৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

পানের সঙ্গে চেতনানাশক খাইয়ে বৃদ্ধার সর্বস্ব লুট

ঝিনাইদহের কালীগেঞ্জ শহরে এক বৃদ্ধাকে চেতনানাশক খাইয়ে তার টাকা নিয়ে পালিয়েছেন এক যুবক। ‍অচেতন অবস্থায় ওই নারীকে একটি রেস্তোরাঁয় রেখে যান তিনি। পরে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হলে দীর্ঘ সময় পর চেতনা ফিরে পান।

কালীগঞ্জ থানা পুলিশ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার সকালে কালীগঞ্জ শহরের শাহী নান্না বিরিয়ানি হাউজে ওই নারীকে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

শাহী নান্না বিরিয়ানি হাউজের ম্যানেজার রিফাত হোসেন জানান, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বৃদ্ধ ওই নারীকে নিয়ে আসেন এক যুবক। তাকে চেয়ারে বসিয়ে রেখে ওষুধ নিয়ে আসার কথা বলেন তিনি। কিন্তু পরে আর ওই যুবক ফেরেননি।

কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আলামিন হোসেন জানান, ওই নারীকে উদ্ধারের সময়ও তিনি অচেতন ছিলেন। পরে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। চেতনা ফেরার পর জানা যায়, তিনি গান্না ইউনিয়নের মাধবপুর এলাকায় বেয়াই বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে শহরের নিমতলা এলাকায় এক যুবক তাকে অনুসরণ করেন। ওই বৃদ্ধার সঙ্গে সেই যুবকের কথা হয় এবং মিষ্টি কিনে দেওয়ার কথা বলেন। পরে পানের সঙ্গে চেতনানাশক কিছু খাওয়ানোর পর ওই নারীকে রেস্তোরাঁয় নিয়ে যান। সেখানে তাকে বসিয়ে রেখে তার কাছে থাকা এক হাজার ৬০০ টাকা নিয়ে পালিয়ে যান ওই যুবক।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. ইমতিয়াজ আলম জানান, প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর চেতনা ফিরলে কথা বলতে পারেন ওই নারী। পরে তার ছেলে সাহেব আলী ও বেয়াই আব্দুল শাহের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পূর্বকোণ/মামুন

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 251 People

সম্পর্কিত পোস্ট