চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ অক্টোবর, ২০২১

২৮ জুলাই, ২০২১ | ৩:২৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

গার্মেন্টস কারখানার নিরাপত্তায় নিয়োজিতদের হয়রানির অভিযোগ

নিট গার্মেন্টসগুলোতে উৎপাদন কার্যক্রম চালু না থাকা সাপেক্ষে কারখানার নিরাপত্তা ও সংরক্ষণের স্বার্থে নিয়োজিত স্বল্প সংখ্যক জনবল ও উদ্যোক্তাদের কারখানায় অবস্থানের ক্ষেত্রে কোন প্রকার হয়রানি না করতে দেশের গার্মেন্টস অধ্যুষিত এলাকার জেলা প্রশাসককে চিঠি দিয়েছে নিট গার্মেন্টস ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বিকেএমইএ ।

সোমবার সংগঠনটির সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান স্বাক্ষরিত ওই চিঠিটি চট্টগ্রাম, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, কুমিল্লা ও ফেনীর জেলার প্রশাসকের কাছে পাঠানো হয়েছে। বিকেএমইএ প্রেরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, নিট শিল্প কারখানাগুলো বিরাট পুঁজিনির্ভর ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর যন্ত্রপাতিসমৃদ্ধ রপ্তানিমুখী শিল্প।

চলমান লকডাউনে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী এই শিল্পে উৎপাদন বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে এত বড় বড় কারখানাগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার স্বার্থে কারখানার অভ্যন্তরে বাধ্যতামূলকভাবে স্বল্পসংখ্যক লোকবল নিয়োজিত রাখতে হয়। কারখানা বন্ধ থাকার সময় গ্যাস ও বিদ্যুতের চাপ বেশি থাকে। তার উপর বর্তমানে প্রচন্ড গরম পড়েছে।

ফলে প্রতিনিয়ত গ্যাস ও বিদ্যুতের নিয়ন্ত্রণ সুইচ বোর্ড চেক করতে হয়, অন্যথায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া কারখানা বন্ধের কারণে  ইঁদুর ও পোকা মাকড়ের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। এই বিষয়গুলি দেখার জন্য বর্তমান সময়ে কারখানাগুলোতে স্বল্পসংখ্যক জনবল নিয়োজিত রাখতে হচ্ছে।  সরকার লকডাউন নিয়ে যে নির্দেশনা দিয়েছেন, সেখানেও আমদানি রপ্তানির স্বার্থে ব্যাংক, বন্দর ও সংশ্লিষ্ট ডিপার্টমেন্টগুলো খোলা রাখার নির্দেশনা আছে। কিন্তু বর্তমানে ক্ষেত্র বিশেষে কারখানার উদ্যোক্তা ও অত্যাবশ্যকীয় ওইসব জনবলকে তাঁদের নিজ নিজ কারখানায় যেতে প্রচুর বাধার সম্মুখিন হতে হচ্ছে। অনেক সময় প্রশাসনের লোকজন কারখানা খোলা দেখতে পেলে উদ্যোক্তাদের নানাভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করছেন এবং সে কারণে তাদের হয়রানির স্বীকার হতে হচ্ছে।

বিকেএমইএ সভাপতি চিঠিতে বলেন, আমরা চলমান লকডাউনের সময় কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম চালুর পক্ষে নই। কোন কারখানায় উৎপাদন কার্যক্রম চলমান পাওয়া গেলে, সেই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করলে তাতে বিকেএমইএ’র কোন আপত্তি থাকবে না। তবে কারখানার নিরাপত্তা, গ্যাস ও বিদ্যুতের সুইচ বোর্ড মনিটরিং ও ব্যবস্থাপনা এবং মেশিনারিজ নৈমিত্তিক পরিক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় উক্ত স্বল্প সংখ্যক জনবল ও উদ্যোক্তাদের কারখানায় উপস্থিত থাকলে, বিশাল বিনিয়োগকৃত এই শিল্পের স্বার্থে তাদেরকে যেন কোনভাবেই হয়রানি করা না হয় এবং একইসঙ্গে আলোচ্য ব্যক্তিদের কাজের উদ্দেশ্যে কারখানায় যাতায়াতে রাস্তায় যেন কোনরকম হয়রানির শিকার না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখার অনুরোধ জানানো হয়।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 465 People

সম্পর্কিত পোস্ট