চট্টগ্রাম সোমবার, ১০ মে, ২০২১

১৫ এপ্রিল, ২০২১ | ৬:৪৩ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশি পাসপোর্টের একধাপ ‘উন্নতি’

চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে এসে বাংলাদেশের পাসপোর্ট বৈশ্বিক র‍্যাঙ্কিংয়ে একধাপ এগিয়েছে। গত জানুয়ারিতে হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স (এইচপিআই)-এর করা এই তালিকায় ১০১ নম্বরে ছিল বাংলাদেশ।

প্রায় এক বছরের মধ্যে বাংলাদেশ প্রথমবার ১০০ নম্বরে উঠল। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এটি ছিল ৯৮ নম্বরে।

১১০টি দেশ নিয়ে করা এই তালিকায় বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে ১০০ নম্বরে আছে লেবানন এবং সুদান। শীর্ষে জাপান।

বাংলাদেশিরা ভিসা ছাড়া যেতে পারবেন ৪১টি দেশে। আগেও ভিসা ছাড়া এই দেশগুলোতে যেতে পারতেন বাংলাদেশিরা।

ভিসা ছাড়া ভ্রমণ বলতে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোতে যেতে আপনার ভিসা লাগবে না। আর ভিসা অন অ্যারাইভাল মানে ভিসা লাগবে, তবে বিমানে ওঠার সময় না হলেও চলবে। দেশটিতে গিয়ে বিমানবন্দর বসে আবেদনের পর সেখান থেকেই সংগ্রহ করতে পারবেন।

বাংলাদেশি পাসপোর্ট সবচেয়ে শক্তিশালী হয় ২০০৬ সালে। সেবছর ৬৮তম স্থানে ছিল। ১০১-ই এ যাবতকালের সবচেয়ে খারাপ অবস্থান।

সারা বিশ্বের পাসপোর্টধারীরা প্রাক-ভিসা ছাড়া কয়টি দেশে যাতায়াতের সুযোগ পান তারই র‌্যাংকিং হলো হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স।

ইনডেক্স অনুযায়ী বাংলাদেশের জন্য দেশগুলো হল: ভুটান, ইন্দোনেশিয়া, মালদ্বীপ, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, পূর্ব তিমুর, কেপ ভার্দে, কোমোরোস দ্বীপপুঞ্জ, গাম্বিয়া, গিনি-বিসাউ, কেনিয়া, মাদাগাস্কার, লেসোথো, মৌরিতানিয়া, মোজাম্বিক, রুয়ান্ডা, সিসিলি, সিয়েরা লিওন, সোমালিয়া, টোগো, কুক আইসল্যান্ডস, ফিজি, মাইক্রোনেশিয়া, নিউই, সামোয়া, টুভালু, ভানুয়াতু, বাহামা, বার্বাডোজ, ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ, ডোমিনিকা, গ্রেনাডা, হাইতি, জ্যামাইকা, মন্টসেরাট, সেন্ট কিটস এবং নেভিস, সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইনস, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো, বলিভিয়া।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 323 People

সম্পর্কিত পোস্ট