চট্টগ্রাম রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

সর্বশেষ:

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ৮:২২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম থেকে মংলা যাওয়ার পথে জাহাজডুবি, ৯৯৯ এ কল পেয়ে ১১ নাবিক উদ্ধার

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন কলে ডুবে যাওয়া জাহাজের ১১ নাবিককে বৃহস্পতিবার ভোরে উদ্ধার করেছে নৌপুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ৯৯৯ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, এমভি বোরহান সরদার ১ নামের একটি সিমেন্ট ক্লিংকারবাহী লাইটার জাহাজ ১১ জন নাবিকসহ বুধবার সকালে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে মংলা বন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। লক্ষীপুরের রামগতি থানাধীন গজারিয়ার চর এলাকায় যখন তারা পৌঁছায় তখন রাত নেমে আসে। নদীতে তখন কুয়াশার কারণে তাদের দৃষ্টিসীমা কমে গিয়েছিল। সেখানে নোঙ্গর করে রাত কাটিয়ে সকালে রওনা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তারা।

রাত তখন সাড়ে ১১টা। কুয়াশার কারণে দিকভ্রান্ত হয়ে সেতু ৬ নামে একটি জাহাজ তাদের নোঙর করা জাহাজকে প্রচণ্ড জোরে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। ধাক্কায় তাদের জাহাজের তলা ফেটে পানি উঠতে শুরু করে। কুয়াশার কারণে চারপাশে পরিষ্কার কিছুই দেখা যাচ্ছিল না। তারা বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করলেও মাঝ রাতে কেউ তাদের সাহায্যে এগিয়ে আসেনি। ইতিমধ্যে ঘণ্টাখানেক সময় পার হয়ে গেছে। রাত তখন সাড়ে ১২টা। জাহাজে পানি উঠে এক পাশ ডুবে যায়। হঠাৎ সোহেল নামে এক নাবিকের মনে হলো শেষ চেষ্টা হিসেবে ৯৯৯ এ ফোন করে দেখা যাক।

৯৯৯ যখন সোহেলের ফোন কলটি রিসিভ করে রাত তখন ১টা বাজতে এক মিনিট বাকী। ৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে নৌপুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষে বিষয়টি জানায়। নৌপুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে বিষয়টি লক্ষ্মীপুরের বড়খেরী নৌপুলিশ ফাঁড়িকে জানায়। ঘটনাস্থল বড়খেরী নৌপুলিশ ফাঁড়ি থেকে নৌপথে ১২/১৩ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত।

খবর পেয়ে রাত ২টার দিকে বড়খেরী নৌপুলিশ ফাঁড়ির একটি দল উদ্ধারকারী নৌযান যোগে ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। কিন্তু কুয়াশার কারণে দৃষ্টিসীমা কম থাকায় তাদের যথেষ্ট সাবধানে এবং ধীরে নৌপথে অগ্রসর হতে হয়েছে। ভোর ৫টার দিকে কুয়াশাচ্ছন্ন মেঘনা নদী থেকে একটি মাছ ধরার ট্রলারের সহযোগিতায় নদীতে লাইফ জ্যাকেট পরে ভাসমান অবস্থায় থাকা ১১ জন নাবিককে উদ্ধার করা হয়েছে।

ইতিমধ্যে এমভি বোরহান সর্দার ১ সম্পূর্ণ রূপে নিমজ্জিত হয়ে গেছে। উদ্ধারকৃত নাবিকদের নিরাপদে তীরে নিয়ে আসা হয়েছে এবং তারা সবাই সুস্থ আছেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। (তথ্য সূত্র- ইউএনবি)

পূর্বকোণ/মামুন

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 537 People

সম্পর্কিত পোস্ট