চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১:৩২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা অফিস

কল্যাণ পার্টির নেতৃত্বে হচ্ছে নয়া মোর্চা !

কল্যাণ পার্টির নেতৃত্ব নতুন রাজনৈতিক মোর্চা গড়ার চেষ্টা চলছে। বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের বেশ কয়েকটি দল ও সমমনাদের নিয়ে এই জোট গড়া হতে পারে। বিএনপির উল্লেখযোগ্য বেশ কয়েকজন নেতা ছাড়াও সাবেক আমলা ও সাবেক সামরিক কর্মকর্তারা এই নতুন জোট গড়ায় কাজ করছেন বলে জানা গেছে। তবে, আনুষ্ঠানিকভাবে কল্যাণ পার্টি তরফে কেউ নয়া জোট গড়ার এই বিষয়টি স্বীকার করছেন না।

বরং কল্যাণ পার্টির নেতারা জানিয়েছেন, দেশের মানুষ পরিবর্তন চায়। তাই, তারা সকলকে নিয়ে বিএনপির নেতৃত্বে বৃহত্তর একটি রাজনৈতিক প্লাটফরম গড়ার চেষ্টা করছেন। কল্যাণ পার্টি মনে করে, নেতৃত্বে নতুন মুখ দেখতে চাইছে বাংলাদেশের মানুষ। তাই আগামী নির্বাচনে জাতীয় সংসদে তাদের দল থেকে অন্তত ২০০ আসনে প্রার্থী মনোনয়ন দেয়ার চেষ্টা করা হবে। গত বৃহস্পতিবার কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের এমন বক্তব্যের পর থেকেই রাজনৈতিক মহলে আলোচনা উঠেছে যে, কল্যাণ পার্টি কি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ছেড়ে এককভাবে কিংবা নতুন কোন জোট গঠন করে ২০০ আসনে প্রার্থী দেবে?  এ বিষয়ে দলটির ঘনিষ্ঠ মহলের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কল্যাণ পার্টি ২০ দলীয় জোট ছাড়বে না।

বরং ২০ দলীয় জোটের প্রধান দল বিএনপির কাছে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২০০ আসন চাইবে দলটি। কল্যাণ পার্টির শীর্ষ নেতা সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম এক নিউজ পোর্টালকে জানিয়েছেন, তারা ২০ দলীয় জোট থেকে বের না হয়ে বরং সেই জোট থেকেই আগামীতে ভোটে লড়বেন এবং ২০ দলের জোট থেকে ২০০ আসনে প্রার্থী দেবেন। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি আগামী সংসদ নির্বাচনে ২০০ আসনে প্রার্থী দেবে জানিয়ে সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেছেন, বর্তমান সরকারের অধীনে কল্যাণ পার্টি সংসদ নির্বাচনে যাবে না।

একটি নিরপেক্ষ সরকার ও নতুন করে গঠিত নির্বাচন কমিশনের অধীনে কল্যাণ পার্টি নির্বাচন করতে চায়। এজন্য এখন থেকেই সরকারকে তা করতে বাধ্য করতে হবে। আগামী নির্বাচনে কি বিএনপি আপনাদের ২০০ আসন দেবে- এই প্রশ্নের জবাবে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান জানান, বঙ্গোপসাগরে তো অনেক পানি গড়ায়। দেখা যাক কি হয়। আর এখনো তো অনেক দেরি আছে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 588 People

সম্পর্কিত পোস্ট